| প্রচ্ছদ

প্রেমে ছ্যাঁকা খাওয়ার পর যা ঘটেছিল পরিণীতি চোপড়ার জীবনে

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩৮ বার

বলিউড তারকাদের প্রেমের গল্প যতই লুকানো হোক না, তা বেরিয়ে আসবেই। তবে পরিণীতি চোপড়া নিজেই বললেন নিজের প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হওয়ার গল্প। জানালেন প্রেমে ছ্যাঁকা খাওয়ার পর কীভাবে নিজেকে সামলে নিয়েছিলেন।

সম্প্রতি পিংকভিলাকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে পরিণীতি জানিয়েছেন, প্রেমে প্রত্যাখ্যানের একটা কষ্টকর অভিজ্ঞতা পরিণীতি চোপড়ার জীবন বদলে দিয়েছে এবং এটিই তার জীবনের সবচেয়ে খারাপ সময় ছিল। যদিও নিজের প্রাক্তন প্রেমিকের পরিচয় প্রকাশ করেননি পরিণীতি।

সাক্ষাৎকারে পরিণীতি বলেন, ‘মন ভাঙা কাকে বলে, সেই একটা বড় অভিজ্ঞতা আমি পেরিয়ে এসেছি এবং আমি মনে করি এটাই একমাত্র ঘটনা হবে। সত্যি কথা বলতে কী, আমি অদ্ভুত অগোছালো অবস্থায় ছিলাম। আমার জীবনের সবচেয়ে খারাপ সময় ছিল এটা, কারণ আমি তখন পর্যন্ত কোনো দিন কোনো প্রত্যাখ্যান পাইনি। আমার তখন সবচেয়ে প্রয়োজন ছিল আমার পরিবারকে পাশে পাওয়া। তবে আমি যদি একটুও ম্যাচিওর হয়ে থাকি, তবে তা এই ঘটনার জন্যই। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জীবনের প্রথম দিকেই আমাকে এই অবস্থার মোকাবিলা করতে দেয়ার জন্য।

পরিণীতি অবশ্য নিজের ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে বেশ যত্নশীল ছিলেন, তিনি আগে বলেছিলেন যে নিজের প্রেম সংক্রান্ত বিষয় তিনি নিজের কাছেই রাখেন কারণ তিনি এই বিষয়ে কথা বলতে প্রস্তুত নন।

মুম্বাই মিররকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে পরিণীতি বলেন, ‘আমার জীবন এটাই। আমার প্রেম সংক্রান্ত যে জীবন, সেটা একমাত্র একটা জিনিস যা আমি একেবারে নিজের কাছে রাখতে চাই, কারণ আমি এই নিয়ে কথা বলতে প্রস্তুতই নই। আমি কিন্তু কিছু লুকোচ্ছি না, কেবল আনুষ্ঠানিকভাবে কোথাও কোনো ঘোষণা করছি না। আমি যদি এসবের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করি তাহলে করব।’

৩০ বছর বয়সী এই অভিনেত্রীকে শেষ দেখা গিয়েছিল কেশরি সিনেমায়। এতে তার নায়ক ছিলেন অক্ষয় কুমার। পরিণীতি চোপড়া এখন তার আসন্ন সিনেমা ‘জবরিয়া জোড়ি'র মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছেন, এতে প্রধান চরিত্রে দেখা যাবে সিদ্ধার্থ মালহোত্রাকেও। প্রশান্ত সিং পরিচালিত এবং একতা কাপুর, শোভা কাপুর ও শৈলেশ আর সিং প্রযোজিত সিনেমাটি আগামী ২ আগস্ট মুক্তি পাবে।

মন্তব্য