| প্রচ্ছদ

বাবার জানাজায় না গিয়ে ভাতিজিকে ধর্ষণ করে মেরে ফেলল চাচা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৪৪ বার

নাটোরের সিংড়া উপজেলায় রেশমি খাতুন (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করেছে আপন চাচা। রোববার বেলা ২টার দিকে সিংড়া উপজেলার ইটালি ইউনিয়নের দেওগাছা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় জড়িত চাচা শাহাদত হোসেনকে (৩০) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। কলেজছাত্রী রেশমি খাতুন স্থানীয় বামিহাল অনার্স কলেজের এইচএসসির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী এবং দেওগাছা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার পাকুরিয়া গ্রামে রেশমি খাতুনের দাদা মসলেম উদ্দিন মারা যান। রেশমির বাবা-মা দাদার জানাজায় যান। এ সময় রেশমি খাতুন বাড়ি একাই ছিল। এ সুযোগে চাচা শাহাদত হোসেন বাবার জানাজায় না গিয়ে ভাতিজি রেশমি খাতুনকে ধর্ষণ শেষে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে এলাকাবাসী শাহাদত হোসেনকে আটক করে পুলিশ খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। সেই সঙ্গে শাহাদত হোসেনকে আটক করে পুলিশ। আটক শাহাদত ওই গ্রামের মৃত মসলেম উদ্দিনের ছেলে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিংড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম বলেন, রেশমি খাতুনকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। পরবর্তীতে তদন্ত করে ঘটনার রহস্য বের করা হবে।

মন্তব্য