| প্রচ্ছদ

দুই কেজি চায়ের দাম লাখ টাকা, নিলামে বিক্রি

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৬ বার। প্রকাশ: ০৫ অগাস্ট ২০১৯ ।

বিক্রির ক্ষেত্রে রেকর্ড গড়েছে বিরল আসাম চা। সম্প্রতি নিলামে ২ কেজি মাইজান অর্থোডক্স গোল্ডেন টি’র দাম উঠেছে দুই হাজার ৩৫ ডলার বা এক লাখ ৪১ হাজার রুপি, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় এক লাখ ৭১ হাজার টাকার কিছু বেশি।

গালফ নিউজ জানায়, বুধবার বেলজিয়ামের এক ব্যবসায়ী স্থানীয় এজেন্ট থেকে এই চা নিলামে কিনে নেন। তবে ক্রেতার নাম জানা যায়নি।

গুয়াহাটি টি অকশন সেন্টারের সেক্রেটারি দিনেশ বিহানি জানান, আসাম চায়ের ক্ষেত্রে এই দাম একটি রেকর্ড। এর আগে এক কেজি মনিহারি গোল্ডেন টি বিক্রি হয় ৫০ হাজার রুপিতে।

আসামের বাজার থেকে নিয়মিত চা কিনে নেয় জার্মানি, ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের ক্রেতারা। ধারণা করা হয়, বেশি দামের বিকিকিনিগুলো প্রকাশ্যে হয় না।

মাইজান অর্থোডক্স চা তৈরি হয় ১০০ বছরের পুরোনো গাছ থেকে। যার মালিকানা আসাম কোম্পানি ইন্ডিয়া লিমিটেডের হাতে, এটি বিশ্বের পুরোনো চা উদ্যোগগুলোর একটি।

আসাম কোম্পানির পরিচালক সঞ্জয় জৈন এএফপিকে জানান, মাইজান গোল্ডেন টি’র স্বাদ ও ঔজ্জ্বল্য একদম আলাদা। যা অনন্য স্বাদ এনে দেয়। আর এই চায়ের উৎপাদন সময়সাপেক্ষ ও ক্লান্তিকর।

আরও জানান, কুঁড়িগুলো আবহাওয়ার ওপর নির্ভর করে নির্দিষ্ট তারিখে টুকরো টুকরো করা হয়। এরপর হাত দিয়ে চূর্ণ করে রোদে শুকানো হয়। পুরো প্রক্রিয়ায় যন্ত্রের কোনো স্থান নেই।

চলতি বছরে মাত্র ৩৫ কেজি মাইজান অর্থোডক্স উৎপাদিত হয়েছে। যেখান থেকে গত সপ্তাহে দুই কেজি নিলামে তোলা হয়।

মন্তব্য