| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় পাঁচ ক্যাটাগরিতে ৩৯ পুলিশ সদস্য পুরস্কৃত

অরুপ রতন শীল
পঠিত হয়েছে ৮১৭ বার

বগুড়ায় পাঁচ ক্যাটাগরিতে এবার জুলাই মাসের কর্ম সম্পাদনে ৩৯ পুলিশ সদস্যকে পুরস্কৃত করা হয়েছে। বুধবার সকালে পুলিশ লাইন্স স্কুল এন্ড কলেজ অডিটোরিয়ামে মাসিক কল্যাণ এবং অপরাধ সভায় বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা তাদের পুরষ্কৃত করেন। এসময় সভায় জেলা পুলিশের পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপারদের মধ্যে  সফিজুল ইসলাম, মোকবুল হোসেন, আব্দুল জলিল এবং আরিফুর রহমান মণ্ডল,  অতিরিক্ত পুলিশ সুপারদের মধ্যে সনাতন চক্রবর্তী, গাজিউর রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সাবিনা ইয়াসমিন ও হেলেনা আকতার সহ পুলিশের ঊর্ধ্বতনকর্মকর্তাবৃন্দ এবং সকল থানার ওসি উপস্থিত ছিলেন।

চৌকস কার্য সম্পাদনশ্রেষ্ঠ মাদক উদ্ধারকারী’,শ্রেষ্ঠ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারকারী' ‘সর্বোচ্চ প্রসিকিউশন দাখিলকারী, এবং বিশেষ পুরষ্কার,’ - এই পাঁচ ক্যাটাগরিতে সেরা পুলিশ সদস্যদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট , নগদ অর্থ ও সনদ তুলে দেওয়া হয়।

বগুড়ায় পুলিশের মিডিয়া বিভাগের প্রধান এবং  অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, ওই পাঁচ ক্যাটাগরিতে এএসআই, এসআই, সার্জেন্ট,ওসি, ট্রাফিক ইন্সপেক্টর এবং সার্কেল অফিসারদের পুরষ্কারের জন্য নির্বাচিত করা হয়।

চৌকস কার্য সম্পাদনকারী ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছেন বগুড়া শেরপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান, শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হয়েছে বগুড়া শেরপুর থানার ওসি হুমায়ুন কবীর ।  শ্রেষ্ঠ এসআই নির্বাচিত হয়েছেন যথাক্রমে-  সদর থানার নুর আলম, মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের মাহবুবুর রহমান এবং শাজাহানপুর থানার মাসুদ রানা।  শ্রেষ্ঠ এএসআই নির্বাচিত হয়েছেন বগুড়া সদর থানার  ইলিয়াস হোসেন, সোনাতলা থানার নজরুল ইসলাম এবং জেলা বিশেষ শাখার আসাদুজ্জামান।

 শ্রেষ্ঠ মাদক উদ্ধারকারী হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন  ডিবি শাখার এসআই নাছিম উদ্দিন।

শ্রেষ্ঠ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারকারী নির্বাচিত হয়েছেন শাজাহানপুর ইন্সপেক্টর ( তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ।

সর্বোচ্চ প্রসিকিউশন দাখিলকারী নির্বাচিত হয়েছেন যথাক্রমে সদর ট্রাফিকের সার্জেন্ট গোপাল চন্দ্র মন্ডল এবং টিআই আনোয়ার হোসেন।

বিশেষ পুরস্কার ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ সার্কেল নির্বাচিত হয়েছেন গাবতলি সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সাবিনা ইয়াসমিন, শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ গাবতলী মডেল থানার সেলিম হোসেন, শ্রেষ্ঠ এসআই ডিবি পুলিশের ফিরোজ সরকার এবং শ্রেষ্ঠ নারী হেল্প ডেক্স কর্মকর্তা শেরপুর থানার এএসআই মোর্শেদা খাতুন।

 ওই সভায় পুলিশ বাহিনীর আরও ২৩ সদস্যকে অর্থ পুরস্কারে পুরস্কৃত করা হয়। তারা হলেনঃ এস আই যথাক্রমে  সদর থানার সোলায়মান আলী, আদমদিঘী থানার মিনার আলী ও শিবগঞ্জ থানার আলহাজ উদ্দিন ও আহসানুল হক, গাবতলী মডেল থানার কান্তি কুমার মোদক ও রিপন মিঞা, ধুনট থানার প্রদীপ কুমার বর্মণ এবং সারিয়াকান্দি থানার আব্দুর রাজ্জাক।   

এছাড়া এএসআই পদে অর্থ পুরস্কার লাভ করেন যথাক্রমে- সদর থানার আবু তাহের, আব্দুস সালাম, মাসুদ রানা, শাহাজাহানপুর থানার ইয়াসিন আলী, ধুনট থানার শাজাহান আলী ও আউয়াল হোসেন, দুপচাচিয়া থানার হাফিজুর রহমান, গাবতলী মডেল থানার আব্দুল আউয়াল ও নয়ন কৃষ্ণ হোড়, কাহালু থানার আতাউর রহমান, সোনাতলা থানার নজরুল ইসলাম, সারিয়াকান্দি থানার মিজানুর রহমান, সদর থানার এটিএসআই যথাক্রমে আনিসুর রহমান, বদিউজ্জামান এবং খলিলুর রহমান। এছাড়াও ৯ জন পুলিশ সদস্যকে অবসরোত্তর সংবর্ধনা দেয়া হয়।

মন্তব্য