| প্রচ্ছদ

১৩ পণ্যের লাইসেন্স বাতিল করেছে বিএসটিআই

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭৬ বার
পণ্যের মান খারাপ হয়ে যাওয়ায় বাজারে থাকা খাদ্যসহ ১৩টি পণ্যের লাইসেন্স বাতিল করেছে মান নির্ধারক সংস্থা বিএসটিআই।

বুধবার সরকারি এই সংস্থার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, খোলাবাজার থেকে বিভিন্ন পণ্যের নমুনা নিয়ে ল্যাবে পরীক্ষা করে বিএসটিআই’র সার্ভিল্যান্স টিম। পরীক্ষায় পণ্যের মান নিম্নমানের হিসাবে চিহ্নিত হওয়ায় কোম্পানিগুলোর সার্টিফিমেশন মার্কস লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে।”

এর মধ্যে রয়েছে নারায়ণগঞ্জের শক্তি এডিবলের শক্তি ও কিচেনা ব্র্যান্ডের ফর্টিফাইড সয়াবিন তেল, আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজের ফার্ম ফ্রেশ ব্র্যান্ডের ঘি, এ কে খান ফুড অ্যান্ড বেভারেজের সেফ ব্র্যান্ডের ফর্টিফাইড সয়াবিন তেল, চাঁদপুরের বিসমিল্লাহ সল্ট ফ্যাক্টরির উট ব্র্যান্ডের আয়োডিনযুক্ত লবণ, একই এলাকার জনতা সল্ট মিলের নজরুল ব্র্যান্ডের আয়োডিনযুক্ত লবণ, ঝালকাঠির জে কে ফুডের মদিনা ব্র্যান্ডের লাচ্ছা সেমাই, রাজশাহীর মডার্ণ কসমেটিকস অ্যান্ড হারবালের মডার্ন ব্র্যান্ডের স্কিন ক্রিম, রাজশাহীর জি এম কেমিক্যাল ওয়ার্কসের জিএম ব্র্যান্ডের স্কিন ক্রিম, নিউ চট্টলার এরাবিয়ান স্পেশাল ব্র্যান্ডের ঘি, রেভেন ফুড কোম্পানির রেভেন ব্র্যান্ডের লাচ্ছা সেমাই, খাজানা মিঠাই কোম্পানির খাজানা ব্র্যান্ডের লাচ্ছা সেমাই, ঘি ও চানাচুর।

বিভিন্ন কোম্পানির এই পণ্যগুলো বিএসটিআইর ছাড়পত্র নিয়েই বাজারে এসেছিল; কিন্তু পরে মান খারাপ হয়।

মান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে নতুনভাবে লাইসেন্স গ্রহণ ছাড়া সংশ্লিষ্ট উৎপাদনকারী, সরবরাহকারী, পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের এসব পণ্য বিক্রি, সংরক্ষণ ও বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধ রাখতে নির্দেশ দিয়েছে বিএসটিআই। এসব পণ্য বাজার থেকে তুলে নেওয়ার অনুরোধও করা হয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজের কোয়ালিটি কনট্রোল বিভাগের কর্মকর্তা এম এম ইকবাল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, তাদের কোম্পানির ফার্মফ্রেশ ঘি দীর্ঘদিন ধরে বাজারে বিপণন হচ্ছে না।

ওয়েবসাইট ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া মডার্ণ কসমেটিকস অ্যান্ড হারবালসহ অন্য কয়েকটি কোম্পানির ফোন নম্বরে কল করা হলে সেগুলো বন্ধ পাওয়া যায়।

মন্তব্য