| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় যমুনার তীরে ভেসে এলো ৭ বছরের শিশু

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১০৭ বার। প্রকাশ: ০৮ অগাস্ট ২০১৯ ।

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার যমুনার তীর থেকে মমতা (৭) নামে এক মেয়েশিশুকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে চন্দনবাইশা ইউনিয়নের শেখপাড়ার নদীতীর থেকে ওই শিশুকে উদ্ধার করা হয়।

সারিয়াকান্দি উপজেলার চন্দনবাইশা ইউনিয়নের শেখপাড়া গ্রামের আবদুল খালেকের স্ত্রী পারভীন বেগম জানান, বৃহস্পতিবার সকালে তিনি বাড়ির কাছে যমুনা নদীতে ভেসে আসা খড়ি সংগ্রহ করতে যান। এ সময় নদীতীরে হাঁটুপানিতে এক কন্যাশিশুকে ভাসতে দেখেন। মেয়েটি জীবিত মনে হওয়ায় দ্রুত তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

একবার জ্ঞান ফিরলে সে অস্পষ্ট স্বরে তার নাম মমতা, বাবার নাম ময়েন উদ্দিন, মা ফিরোজা বেগম এবং ভাইয়ের নাম মোমিন বলেছে। গ্রামের নাম বলেছে, হলকারচর। এর পর আবার ঘুমিয়ে যায়।

সারিয়াকান্দি থানার ওসি আল আমিনসহ অন্যরা জানান, বুধবার রাতে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জের চুকাইবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ভিজিএফের চাল নিয়ে দুস্থরা নৌকায় স্থানীয় হলকারচরে ফিরছিলেন।

বৈরী আবহাওয়ায় মাঝ নদীতে নৌকা ডুবে যায়। এ সময় নৌকায় থাকা ১৬ যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। ছয়জন সাঁতরে আশপাশের চরে আশ্রয় নেন।

সকালে সারিয়াকান্দির শেখপাড়ায় যমুনা নদীতে পাওয়া শিশু মমতাসহ জীবিত ২৩ জন উদ্ধার হয়েছে। এখনও অন্তত ৫ জন নিখোঁজ রয়েছে। বেলা ২টায় পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, মমতার পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে এসেছেন।

মন্তব্য