| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় শাহীন হত্যা মামলায় আমিনুল আবারও কারাগারে

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ৩৬৬ বার

বগুড়ায় বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীন হত্যা মামলার প্রধান আসামী স্থানীয় মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামকে আবারও কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। এর আগে গ্রেফতার হয়ে ৩ মাসেরও বেশি সময় কারাগারে আটক থাকার পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে আমিনুল ইসলাম গত ১ আগস্ট জামিনে মুক্তি পেয়েছিলেন।
মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী আব্দুল বাসদে জানান, আমিনুল ইসলামের জামিনের আদেশের বিরুদ্ধে স্থগিতাদেশ চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ গত ১ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার জজ নাজমুন আরার আদালতে আবেদন করেন। শুনানী শেষে আদালত হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করে ৮ আগস্টের মধ্যে আমিনুল ইসলামকে সংশ্লিষ্ট আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।
বগুড়ার কোর্ট ইন্সপেক্টর আবুল কালাম আজাদ জানান, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী আমিনুল ইসলাম বৃহস্পতিবার সকালে বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হন। পরে বিচারক খালিদ হাসান তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, ‘আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে সি/ডব্লিউ বা কাস্টডি ওয়ারেন্ট ছিল।’
বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম শাহীন গত ১৪ এপ্রিল রাতে শহরের উপ-শহর বাজার এলাকায় খুন হন। তার দু’দিনের মাথায় নিহত শাহীনের স্ত্রী আকতার জাহান শিল্পী ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামসহ ১০জনের বিরুদ্ধে ১৬ এপ্রিল বগুড়া সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ গত ২৩ এপ্রিল সন্ধ্যায় ঢাকা থেকে আমিনুল ইসলামকে গ্রেফতার করে। তবে তারও আগে রাসেল ও পায়েল নামে অপর ২ আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। তারা দু’জনই ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দী দেয়।
আদালত সূত্র জানায়, এর আগে কারাগারে আটক থাকা অবস্থায় আমিনুল ইসলাম জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে আবেদন করেছিলেন। শুনানী শেষে আদালত গত ২১ জুলাই ৮ সপ্তাহের জন্য তার জামিন মঞ্জুর করেন।

মন্তব্য