| প্রচ্ছদ

হাইকোর্টেও জামিন হলো না মিন্নির

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৫ বার। প্রকাশ: ০৮ অগাস্ট ২০১৯ ।

বরগুনায় বহুল আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন আবেদন খারিজ করেছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার জামিন আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চ বলেছে, আদালত শুধু রুল জারি করে সরকারের কাছে ব্যাখ্যা চাইবে কেন আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে জামিন দেওয়া হবে না। তবে মামলার এ পর্যায়ে আদালত তাকে জামিন দেবে না।

শুনানির শুরুতে জেড আই খান পান্না জামিন দেওয়ার পক্ষে যুক্তিগুলো আদালতের সামনে তুলে ধরেন। পরে রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মমতাজ উদ্দিন ফকির শুনানি শুরু করেন।

হাইকোর্ট হাকিম আদালতে ১৬৪ ধারায় মিন্নির দেওয়া জবানবন্দির কপি আসামিপক্ষের হাতে আছে কি না জানতে চাইলে জেড আই খান পান্না বলেন, জবানবন্দির কপি তাদের হাতে নেই, তাদের তা দেওয়া হয়নি।

বিচারক তখন বলেন, জবানবন্দির কপি দাখিল না করলে জামিন হবে না।

জেড আই খান পান্না তখন আবেদন ফিরিয়ে নেওয়ার আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করে। 

মিন্নির আইনজীবী পরে সাংবাদিকদের বলেন, হাইকোর্ট জামিন না দেওয়ায় তারা ‘মর্মাহত’। 

তিনি বলেন, মামলাটি ধ্বংস করার জন্য এই মামলার একমাত্র চাক্ষুস সাক্ষী ও এক নম্বর সাক্ষীকে আসামি করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত পুলিশ এজাহারভুক্ত অন্য আসামিদের ধরতে তৎপর না, বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় বিষয়টি এসেছে। বিষয়টি আমরা আদালতের কাছে তুলে ধরে বলেছি, মিন্নি একজন ১৯ বছর বয়সী কিশোরী। তিনি জামিন পেতে পারেন। 

রুল না নিয়ে কেন আবেদন ফেরত আনা হয়েছে জানতে চাইলে এ আইনজীবী বলেন, রুল দিলে অনেক সময়ের বিষয়। আমরা আবার জামিন চাইব। জবানবন্দীর কপি না দিলে দরকার হলে আমরা লিগ্যাল নোটিস পাঠিয়ে চাইব। যদি না দেয় তাহলে আবার আমরা আদালতের কাছে যাব।  

অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল মমতাজ উদ্দিন ফকির জানান, এই মামলায় হাইকোর্ট জামিন দিতে না চাওয়ায় মিন্নির আইনজীবী আবেদনটি প্রত্যাহার করে নেন।

মন্তব্য