| প্রচ্ছদ

পরিচয়পত্র পেল পাঁচ লাখের বেশি রোহিঙ্গা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৯ বার

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের পাঁচ লাখের বেশি রোহিঙ্গা পরিচয়পত্র পেয়েছেন। তাদের বেশিরভাগই এই প্রথম কোনো পরিচয়পত্র পেলেন।

বাংলাদেশ এবং জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশনার ইউএনএইচসিআর যৌথভাবে এই পরিচয়পত্র দিচ্ছে। ইউএনএইচসিআর বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, পরিচয়পত্র বা কার্ডটি বায়োমেট্রিক তথ্য সংবলিত এবং এটি নকল বা জাল করা সম্ভব নয়। ১২ বছরের বেশি বয়সি যাচাইকৃত সব শরণার্থীকে কার্ডটি প্রদান করা হচ্ছে।

২০১৮ সালের জুনে রোহিঙ্গাদের এ রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু করে জাতিসংঘ। ৭টি কেন্দ্রে প্রতিদিন প্রায় ৫ হাজার শরণার্থীকে নিবন্ধন করা হচ্ছে। চলতি বছরের মধ্যে শরণার্থীদের নিবন্ধন সম্পন্ন করার লক্ষ্যে ৫৫০ জনেরও বেশি কর্মী নিয়োগ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কক্সবাজারে ৯ লাখের বেশি শরণার্থী বসবাস করছে। এর মধ্যে ৭ লাখ ৪০ হাজার শরণার্থী ২০১৭ সালের আগস্টের পর মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসেছে। ইউএনএইচসিআর বাংলাদেশ প্রতিনিধি স্টিভেন করলিস বলেন, এটি একটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক।

এই কার্ডটি থাকায় নিবন্ধিত শরণার্থীরা আরও নিরাপদ বোধ করবে এবং বাংলাদেশে অবস্থানের সময় তাদের প্রয়োজনীয় সেবা গ্রহণ করতে পারবে। এছাড়া কার্ডটিতে স্পষ্ট করে উল্লেখ আছে তাদের মূল দেশ মিয়ানমার। তারা যখন নিজের দেশে ফিরে যেতে চাইবে তখন কার্ডটি তাদের নিজের দেশে ফেরার অধিকার প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

মন্তব্য