| প্রচ্ছদ

ভারত-পাকিস্তানে ভয়াবহ বন্যা, দেড় শতাধিক প্রাণহানি

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪১ বার। প্রকাশ: ১২ অগাস্ট ২০১৯ ।

ভারতে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল এবং পাকিস্তানের করাচি শহরের দিকে বন্যা দেখা দিয়েছে। ভয়াবহ আকার ধারণ করা এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে এখনো পর্যন্ত দুই দেশে ১৬৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

পাকিস্তানি গণমাধ্যম দ্য ডন বলছে, করাচি শহরের দক্ষিণাঞ্চল পুরোটাই পানির নিচে। সেখানে ১৭ জন মারা গেছেন। অন্যদিকে ভারতে মারা গেছেন ১৪৭ জন।

এর মধ্যে শুধু কেরালায় গত তিনদিনে ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যসরকারের পক্ষ থেকে সেনাবাহিনীকে উদ্ধারকারী দল প্রস্তুত করতে এবং আকাশপথে গ্রামগুলোতে খাবার পৌঁছে দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ওয়ানাদ, কান্নুর ও কাসারগদ এই তিন জেলায় রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। সেখানে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এক লাখ ৬৫ হাজারেরও বেশি মানুষকে।

কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বলেছেন, ‘অনেক বাড়িঘর এখনও ১০-১২ ফুট কাদায় ঢেকে আছে, এ পরিস্থিতিতে উদ্ধার কাজ ব্যাহত হচ্ছে।’

করাচির উদ্ধারকারী দলের কর্মকর্তা আনওয়ার কাজিম বলেন, ‘রোববার বৈদ্যুতিক তারের কারণে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। ঘর ভেঙে পড়ায় মারা গেছেন আরও তিনজন। সারা রাত সেখানে বন্যা হয়েছে।’

তিনি জানান, শহরে ১৮০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টি হয়েছে।

মন্তব্য