| প্রচ্ছদ

আপত্তিকর পোশাক: জেনিফার লোপেজের বিরুদ্ধে মামলা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫৭ বার। প্রকাশ: ১৫ অগাস্ট ২০১৯ ।

কয়েক দিন আগে মিসরের নর্থ কোস্টে জমজমাট কনসার্টে অংশ নেন মার্কিন পপ গায়িকা জেনিফার লোপেজ। পুরো স্টেডিয়াম ছিল কানায় কানায় পূর্ণ।

গালফ নিউজ জানায়, ওই অনুষ্ঠানে জেনিফারের পরা পোশাক পছন্দ হয়নি আইনজীবী সামির সাব্রির। তাই মামলা করে দেন গায়িকার নামে। তাকে দেশটিতে নিষিদ্ধের দাবিও তোলেন।

লোপেজের ওই অনুষ্ঠান ২ হাজার দর্শক উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন মিসরীয় সেলিব্রিটি, শিল্পী, সরকারের মন্ত্রীসহ অনেকে। এটি ছিল লোপেজের ‘ইটস মাই পার্টি’ ট্যুরের শেষ শো।  গায়িকার ৫০ বছর উদ্‌যাপনে এই সিরিজ কনসার্টের আয়োজন করা হয়। এর আগে ইসরায়েল, রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্কে শো করেন তিনি।

সাব্রি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে রোববার জানান, লোপেজের পরনে ছিল খুবই স্বচ্ছ ও নগ্ন পোশাক। কনসার্টের দিনটিও যথাযথ ছিল না। কারণ এটি ছিল জিলহজ মাসের গুরুত্বপূর্ণ দিন। যেদিন হজ পালনকারীরা সৌদি আরবের আরাফাত ময়দানে প্রার্থনা করছেন, সেই দিন এমন অনুষ্ঠান মানা যায় না।

তিনি দাবি করেন, ‘মঞ্চে নগ্ন’ হয়ে মিসরের ঐতিহ্য ও রীতি-নীতিকে লঙ্ঘন করেছেন লোপেজ। তবে দর্শক-শ্রোতাদের অনেকে ‘নগ্ন’ হওয়ার দাবিটি অস্বীকার করেছেন।

৬৮ বছর বয়সী সাব্রি এর আগে একই ধরনের অভিযোগ এনেছেন স্থানীয় তারকাদের বিরুদ্ধে। এক লাল গালিচা অনুষ্ঠানে স্বচ্ছ পোশাক পরায় তিনি মিসরীয় অভিনেত্রী রানিয়া ইউসূফের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ২০১৮ সালে নীল নদের পানি নিয়ে কৌতুক করায় গায়িকা শেরাইনকে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করান। তার কারণে ২০১৫ সালে সামা আল মাসরি নামের এক বেলি ড্যান্সারকে সংসদ নির্বাচন থেকে বিরতি থাকে।

তবে সাব্রির সব অভিযোগে যে বিচারকরা পাত্তা দিয়েছেন এমন নয়। অনেকবার তার মামলা খারিজ হয়ে যায়।

মন্তব্য