| প্রচ্ছদ

চোলাই মদ উদ্ধার

বগুড়ার শেরপুরে মাদক ব্যবসায়ী দুই যুবলীগ নেতাসহ গ্রেফতার ৪

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৪১ বার

বগুড়ার শেরপুরে চোলাই মদসহ একাধিক মামলার আসামি যুবলীগ নেতাসহ চার মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় শরীর তল্লাশি করে তাদের হেফাজতে থাকা দশ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়েছে।  বৃহস্পতিবার  রাতে উপজেলার রনবীরবালা ঘাটপাড় এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
তারা হলেন-ধুনট পৌর এলাকার সদরপাড়া গ্রামের ছবদের আলীর ছেলে উপজেলা যুবলীগের সহ-সম্পাদক সুজন মিয়া (৩৬) ও আব্দুর রহমানের ছেলে উপজেলা যুবলীগের সহ-সম্পাদক ফরহাদ হোসেন (৩৬), আব্দুর রহিম উদ্দিন সরকারের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম জগদিস (৪৫) ও একই এলাকার চিকাশি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আব্দুর রউফ (২২)। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে একটি মামলা দিয়ে গতকাল শুক্রবার (১৬আগস্ট) দুপুরের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।
মামলা সূত্রে জানা যায়, যুবলীগ নেতা সুজন মিয়া, ফরহাদ হোসেন ও তার দুই সহযোগী দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের মাদক দ্রব্য সেবন ও ব্যবসা করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে শেরপুর ও ধুনট থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এদিকে গত বৃহস্পতিবার রাত অনুমান সাড়ে ৮টার দিকে শেরপুর উপজেলার রনবিরবালা ঘাটপার এলাকায় এলাকায় স্থানীয়ভাবে তৈরী চোলাইমদ বিক্রি করছিল সুজন ও ফরহাদ হোসেনসহ তার দুই সহযোগী। এমন খবর পেয়ে শেরপুর থানার একদল পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে সুজন ও ফরহাদ হোসেনসহ তার দুই সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে। এসময় তাদের হেফাজতে থাকা দশ লিটার চোলাই মদ জব্দও করা হয় বলে জানা গেছে।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে শেরপুর থানার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ুন কবির এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে শেরপুর ও ধুনট থানায় একাধিক মামলাও রয়েছে। এদিকে বক্তব্য জানতে চাইলে ধুনট উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ভিপি শেখ মতিউর রহমান বলেন, শেরপুর থানায় খবর নিয়ে নিশ্চিত হয়েছি সুজন ও ফরহাদ হোসেন চোলাইমদসহ গ্রেপ্তার হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে জেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দর সঙ্গে কথা বলে যুবলীগ নেতা সুজন ও ফরহাদ হোসেনের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে দাবি করেন তিনি।

 

মন্তব্য