| প্রচ্ছদ

কর্মসংস্থান না হওয়ায় রাণীনগরে বেকার যুবকের আত্মহত্যা!

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ)
পঠিত হয়েছে ১০৪ বার। প্রকাশ: ১৬ অগাস্ট ২০১৯ ।

নওগাঁর রাণীনগরে কর্মসংস্থান না হওয়ায় হতাশাগ্রস্থ্য হয়ে সুজন কুমার পাল (২৭) নামের এক বেকার যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে । ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে উপজেলার আতাইকুলা পাল পাড়া গ্রামে । সুজন ওই গ্রামের মৃত গোবিন্দ পালের ছেলে।
জানাগেছে,এদিন দুপুওে গোসল শেষে সুজন পাল নিজ স্বয়ন কক্ষে চলে যায় । এর পর আর বাহিরে বের হয়নি। দুপুরে ভাত খাবার জন্য ছোট ভাই মিলন তাকে ডাকতে গিয়ে দেখে বৈদ্যুতিক তার দিয়ে ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁসি দিয়ে ঝুলে আছে। এসময় চিৎকার করে ওঠলে প্রতিবেশি লোকজন ছুটে এসে তার কেটে দিয়ে দ্রুত নওগাঁ হাসপাতালে ভর্তি করায়। সেখানে অবস্থা বেগতিক দেখে চিকিৎসকরা রাজশাহীতে স্থানান্তর করেন। রাজশাহী নিয়ে যাবার সময় পথি মধ্যে মারা যায় । সুজন পালের ছোট ভাই মিলন পাল বলেন,বাবা মারা যাবার পর আমরা সংসারে দু’ভাই ও মাসহ তিনজন ছিলাম । সুজন গত দু’বছর আগে নওগাঁ সরকারী ডিগ্রী কলেজ থেকে ডিগ্রী পাশ করেছেন। এর পর অভাব অনটনের কারনে আর পড়া লেখা করা হয়নি তার। বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদেরকে প্রাইভেট পড়িয়ে যে টাকা রোজগার হতো তা দিয়েই কোন রকমে সংসার চলতো। এরই মধ্যে বিভিন্ন জায়ায় চাকুরির আবেদন করে কোথাও তার এতটুকু কর্মসংস্থানের সুযোগ মিলেনি। একের পর এক আবেদন করে ফল না পাওয়ায় হতাশাগ্রস্থ্য হয়ে পরেন সুজন। অবশেষে আত্মহত্যা করলেন তিনি । 
ঘটনাস্থলে অবস্থানকারী তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মুমিন,সুজনের পরিবারের বরাদ দিয়ে বলেন,বেকারত্ব থেকে হতাশাগ্রস্থ্য হয়ে আত্মহত্যা করেছে। 
এব্যাপারে রাণীনগর থানার ওসি জহুরুল হক বলেন, সুজনের মৃত্যুর ঘটনায় থানায় একটি ইউ’ডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে। সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত এরিপোট লেখার সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান করছিল। 

 

মন্তব্য