| প্রচ্ছদ

৩০ বছরের যাত্রার সমাপ্তি ঘোষণা করলো বগুড়া এডিপি

এলাকার সামগ্রিক উন্নয়নে ওয়ার্ল্ড ভিশনের ভূমিকা প্রশংসনীয়- জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ৪৪ বার

দীর্ঘ ৩০ বছর যাবত চলমান বগুড়া এডিপি ওয়ার্ল্ড ভিশনের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের সমাপ্তি উপলক্ষ্যে আয়োজিত ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে বগুড়া জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ বলেছেন, উন্নত দেশ গড়ার যাত্রায় সরকারের নানামুখী উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের পাশাপাশি আন্তজার্তিক এনজিওগুলোর ভূমিকা প্রশংসনীয় যাদের মাঝে ওয়ার্ল্ড ভিশন অন্যতম। শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ এলাকার সামগ্রিক উন্নয়নে বিনা স্বার্থে এই সংস্থা দীর্ঘ সময় কাজ করার মাধ্যমে দৃশ্যমান ইতিবাচক পরিবর্তন এনেছে যা অন্যদের জন্য অনুকরণীয়। সেই সাথে সোনার বাংলা গড়তে সকল ভাল শিক্ষাকে গ্রহণের মাধ্যমে দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান জেলা প্রশাসক। বগুড়া এডিপি ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের আয়োজনে বুধবার শহরের বগুড়া কলেজ মাঠে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপোরোক্ত কথাগুলি বলেন। ওয়ার্ল্ড ভিশন নর্দান বাংলাদেশ রিজিওনাল ফিল্ড ডিরেক্টর অঞ্জলি জাসিন্তা কস্তার সভাপতিত্বে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের সিনিয়ার ডিরেক্টর (অপারেশন এবং রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট) জন ডেভিড বার্মান, বগুড়া সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আজিজুর রহমান এবং শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফুয়ারা খাতুন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বগুড়া এডিপি ওয়ার্ল্ড ভিশনের ম্যানেজার এডভ্যান্ট ট্রিপল্যান্ড। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বগুড়া এডিপির প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য প্রদান করেন জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শহিদুল ইসলাম, বগুড়া কলেজের অধ্যক্ষ একেএম মঈন উদ্দিন, বগুড়া কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ কে.বি.এম মুসা, বগুড়া ওয়াইএমসিএ’র পক্ষে রবার্ট রবিন মারান্ডি, সিবিও নেত্রী রেহেনা বানু প্রমুখ।

বগুড়া ইয়ূথ ফোরামের সভাপতি সঞ্জু রায় ও পুষ্পা খাতুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, জেলা পুলিশের সদস্যবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ, সিবিও নেতৃবৃন্দ, শিশু ও ইয়ূথ ফোরাম নেতৃবৃন্দসহ মোট ৫০০ জন অংশগ্রহণ করেন।

উল্লেখ্য, ১৯৮৯ সাল থেকে দীর্ঘ ৩০ বছর যাবত আন্তজার্তিক সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশন বগুড়াতে এডিপির মাধ্যমে প্রায় ১ লক্ষ মানুষের জীবন-জীবিকায়ন, শিশু নিরাপত্তা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও স্যানিটেশন ব্যবস্থায় এনেছে ব্যাপক পরিবর্তন যা প্রতিটি মহলের কাছে প্রশংসনীয়। তাইতো শত শত মানুষের আবেগ ও ভালবাসায় সিক্ত হয়ে দীর্ঘ যাত্রা শেষে বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিল বগুড়া এডিপি ওয়ার্ল্ড ভিশন।
 

মন্তব্য