| প্রচ্ছদ

রাণুর জীবনী নিয়ে সিনেমা হচ্ছে

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৯ বার

পশ্চিমবঙ্গের রানাঘাটের রাণু মণ্ডল। হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে সিনেমার গান রেকর্ডিংয়ের সৌজন্যে ইতিমধ্যেই বিখ্যাত হয়ে গেছেন। এখন মনে হচ্ছে, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জায়গা পাকা করেই ফেলবেন!

দাবি উঠেছে এই ভাইরাল গায়িকার জীবন সেলুলয়েডে তুলে ধরার। প্রস্তাবটি পছন্দ হয়েছে নবাগত পরিচালক হৃষিকেশ মণ্ডলের। তিনি জানান, এই নিয়ে গল্প বুনছেন আপাতত।

তবে এ আইডিয়া প্রথম আসে ক্যাকটাস ব্যান্ডের সিধুর মাথায়। রাণুর গান শোনার পরই তাকে নিয়ে ছবি করার ভাবনাচিন্তা করেন তিনি। ছবিতে যে কয়েকটি গান থাকবে, সেগুলো রাণু নিজেই গাইবেন। তবে এই গায়িকার চরিত্রে কে অভিনয় করবেন, তা এখনো স্থির হয়নি। ছবির নাম হতে পারে ‘প্ল্যাটফর্ম সিঙ্গার রাণু মণ্ডল’।

গত ২০ জুলাই লতা মঙ্গেশকরের ‘পেয়ার কা নাগমা’ গানটি গেয়ে রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ার ‘সুরসম্রাজ্ঞী’ হয়ে উঠেছিলেন রানাঘাটের স্টেশন চত্বরের বাসিন্দা রাণু মারিয়া মণ্ডল। সেই গান ভাইরাল হতেই ভারতজুড়ে তার কণ্ঠের প্রশংসার বন্যা বয়ে গিয়েছিল।

দিল্লির স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ও মুম্বাইয়ের টেলিভিশন প্রোডাকশন হাউস থেকেও কাজের জন্য ডাক পান রাণু। এরপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি।

তবে বলা হচ্ছে, রাণুর মুম্বাই যাত্রা এবারই প্রথম নয়। অনেক বছর আগে মুম্বাইয়ে থাকতেন তিনি। কাজ করতেন অভিনেতা ফিরোজ খানের বাড়িতে।

একটি সংবাদমাধ্যম জানায়, বছর কয়েক আগে অভিনেতা ও চলচ্চিত্র পরিচালক ফিরোজ খানের বাড়িতে রান্নার কাজ করতেন রাণু মণ্ডল। রান্নার পাশাপাশি ঘর ঝাড়পোছ করার কাজও করতেন তিনি। কিন্তু যেহেতু বাঙালি ছিলেন, তাই একটু অসুবিধা হতো। ঝরঝর করে হিন্দি বলতে পারতেন না।

ছেলে ফারদিন খানকে (পরবর্তীতে নায়ক) দেখভাল করার জন্য রাণুকেই বেছে নিয়েছিলেন ফিরোজ। এ ছাড়া ফিরোজের ভাই সঞ্জয় খানকেও (হৃতিক রোশনের সাবেক শ্বশুর) কাজকর্মে সাহায্য করতেন রাণু।

তিনি জানিয়েছেন, কৃষ্ণনগরে থাকতেন এক সময়। রানাঘাটে ছিল তার মাসির বাড়ি। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে তিনি মুম্বাই যান। তখনই ফিরোজ খানের বাড়িতে কাজ শুরু করেন। পরে মানসিক অবসাদ ভুগতে শুরু করছে ফিরে যান রানাঘাটে। তারপরের গল্প তো সবার জানা।

শোনা যাচ্ছে, জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ‘বিগ বস’-এও দেখা যাবে রাণুকে। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালক খোদ সালমান খান নাকি রাণুকে নিয়ে এই ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। যদিও খবরটির সত্যতা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। সালমান ইতিমধ্যে রাণুকে একটি বাড়ি দিয়েছেন, ‘দাবাং থ্রি’ সিনেমার গানের জন্য তাকে নির্বাচনও করেছেন।

মন্তব্য