| প্রচ্ছদ

মুক্তির দিনই অনলাইনে ফাঁস ‘সাহো’

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬৯ বার। প্রকাশ: ৩০ অগাস্ট ২০১৯ ।

অতি প্রতীক্ষিত ভারতীয় সিনেমা ‘সাহো’ মুক্তির কয়েক ঘণ্টার মধ্যে শুক্রবার ফাঁস হয়ে গেল অনলাইনে। আর এর পেছনে রয়েছে বিতর্কিত পাইরেসি গ্রুপ তামিল রকার্স।

ডিএনএ’র এক প্রতিবেদনে জানা যায়, বর্তমানে টরেন্ট সাইট তামিল রকার্স থেকে ডাউনলোড করা যাচ্ছে প্রভাস ও শ্রদ্ধা কাপুর অভিনীত ছবিটি।

ব্লকবাস্টার ‘বাহুবলি’র পর দক্ষিণ ভারতীয় অভিনেতা প্রভাসকে এই সিনেমা দিয়ে দুই বছর পর পর্দায় দেখা গেল। ধারণা করা হচ্ছে, ‘সাহো’ বক্স অফিসে অনেক রেকর্ড ভেঙে দেবে।

তামিল রকার্স নিয়ে অভিযোগ নতুন নয়। প্রায় প্রতি সপ্তাহে নতুন সিনেমা ফাঁস করে দিচ্ছে গ্রুপটি। তাদের ফাঁসের তালিকায় রয়েছে জাজমেন্টাল হ্যায় ক্যায়া, পেটা, বিশ্বাসাম, ভানাথান রাজাভাথান ভারুভেন, গলি বয়, থাগস অব হিন্দুস্তান, ২.০ এর মতো সাম্প্রতিক আলোচিত সিনেমা।

ইতিমধ্যে ভারতীয় সরকার তামিল রকার্সের ওয়েবসাইট নিষিদ্ধ করেছে। কিন্তু থেমে নেই ছবি ফাঁস। ফেব্রুয়ারিতে ফিল্ম ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া (এফএফআই) পাইরেসি নিয়ে প্রতিবাদ করে। মাদ্রাজ হাইকোর্ট এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশও দেয়। কিন্তু থামেনি পাইরেসি।

সুজিত পরিচালিত ‘সাহো’তে আরও অভিনয় করেছেন নীল নিতিন মুকেশ, জ্যাকি শ্রফ, মহেশ মাঞ্জরেকর, চাঙ্কি পাণ্ডে, অরুণ বিজয়, মুরালি শর্মা ও মন্দিরা বেদি।

২ ঘণ্টা ৫১ মিনিটের সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে ৩৫০ কোটি রুপি বাজেটে, যা ভারতের ইতিহাসে অন্যতম ব্যয়বহুল ছবি। ধারণা করা হচ্ছে, প্রথম দিন ৫০ কোটি রুপির বেশি আয় করবে।

এদিকে ‘সাহো’ সম্পর্কে এক লাইনের রিভিউতে সমালোচক তারণ আদর্শ লেখেন, ‘অসহনীয়’। তিনি ছবিটিকে পাঁচের মধ্যে মাত্র দেড় নম্বর দিয়েছেন।

মন্তব্য