| প্রচ্ছদ

কালাইয়ে আ’লীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষে ১ বৃদ্ধ নিহত, আহত ৯

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৮ বার

জয়পুরহাটের কালাইয়ে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে বাঁশের খুঁটি পুঁতে বেড়া দেওয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে সামছুল আলম (৫৯) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও ৯ জন। 

শনিবার সকালে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তার। এর আগে শুক্রবার রাতে উপজেলার কুসুমসারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর সমকাল অনলাইন 

নিহত সামছুল আলম কুসুমসাড়া গ্রামের মৃত ছমির উদ্দিনের ছেলে। 

আহতদের মধ্যে ওই গ্রামের তছির উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রশিদ (৫০), মছির উদ্দিনের ছেলে সামছদ্দিন (৫০), করিম হোসেনের ছেলে নাছির হোসেন (৩০), আব্দুর রশিদের ছেলে রাসুলের (২৪) নাম জানা গেছে।

কালাই থানার ওসি তদন্ত আব্দুল মালেক জানান, জয়পুরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কালাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিনফুজুর রহমান মিলনের সমর্থকরা  শুক্রবার কুসুমসারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে যাতে করে গরু, ছাগল প্রবেশ করতে না পারে সে জন্য বাঁশের খুঁটি পুঁতে বেড়া দেওয়ার কাজ করছিল। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও মাত্রায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত হাবিব তালুকদার লজিকের সমর্থকরা স্কুল মাঠে খুঁটি পুঁততে বাধা দেয়। এ সময় উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। গুরুতর আহতদের রাতেই জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা। তাদের মধ্যে সামছুল আলমের অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

মন্তব্য