| প্রচ্ছদ

বগুড়ার শেরপুরে চাঁদার টাকা না পেয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা-ভাঙচুর : আহত দুই

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৭৬ বার। প্রকাশ: ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

চাঁদার টাকা না পেয়ে বগুড়ার শেরপুর উপজেলার বেলগাড়ী ফকিরতলা এলাকায় একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা হয়েছে। এসময় বাধা দেয়ায় বেধড়ক মারপিট করে প্রতিষ্ঠানটির মালিক ও তার স্ত্রীকে আহত করা হয়। এ ঘটনায় শেরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের বেলগাড়ী ফকিরতলার কাজিম উদ্দিনের ছেলে আল আমিন (৩৫) এলাকায় খাবার হোটেল ও মুদির দোকান দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। তবে বেশকিছুদিন ধরে পাশের চান্দাইকোনা এলাকার সেলিম খন্দকারের ছেলে স¤্রাট খন্দকার (৩৫) কতিপয় সঙ্গীকে নিয়ে উক্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। কিন্তু টাকা না দেয়ায় সংঘদ্ধ ওই চক্রটি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। একপর্যায়ে শনিবার বেলা ১০টার দিকে তারা ওই হোটেলে আসেন। একইসঙ্গে খাবার ও চাঁদার টাকা দাবী করেন।

পরে হোটেলের মালিক আল আমিন রাজী না হওয়ায় একইদিন দুপুর দুইটার দিকে সম্রাটের নেতৃত্বে একটি মাইক্রোবাস ও ৪টি মোটর সাইকেল যোগে অজ্ঞাত নামা সন্ত্রাসীরা এসে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটিতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এমনকি প্রতিষ্ঠানের ক্যাশবাক্স থেকে এক লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় বাধা দিলে সন্ত্রাসীরা হোটেল মালিক আল আমিন ও তার স্ত্রী লুনা বেগমকেও বেধড়ক মারপিট করে আহত করে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। এদিকে আহতদের চিৎকারে স্থানীয় এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে দেন। বর্তমানে তারা সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ঘটনাটি সম্পর্কে বক্তব্য জানতে চাইলে অভিযুক্ত সম্রাটেরর সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু ঘটনার পর থেকেই পলাতক থাকায় তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

শেরপুর থানার (ওসি হুমায়ুন কবীর বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

মন্তব্য