| প্রচ্ছদ

অবসরে যাওয়ার দিন স্ত্রীকে হেলিকপ্টারে চড়ালেন স্কুলশিক্ষক

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫৪ বার। প্রকাশ: ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

স্ত্রী মাঝে মাঝে বাড়িতে বসে হেলিকপ্টার নিয়ে আলোচনা করতেন। জানতে চাইতেন ভাড়া। রাজস্থানের স্কুলশিক্ষক রমেশ মীন বুঝতেন স্ত্রী কপ্টারে চড়তে চায়। সেই চাওয়া তিনি পূরণ করেছেন নিজের অবসরে যাওয়ার দিন।

সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, জয়পুর থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার দূরে রাজস্থানের মালাওয়ালি গ্রামে রমেশের বসবাস। একদিন বাড়ির ছাদে বসেছিলেন রমেশচন্দ মীন ও তার স্ত্রী সোমোতি। সেই সময় মাথার উপর দিয়ে উড়ে যায় একটি হেলিকপ্টার। কৌতূহলের ছলেই রমেশের স্ত্রী সোমোতি জিজ্ঞেস করেন, হেলিকপ্টারে চড়তে কত টাকা নেয়?

প্রশ্নের সঠিক উত্তর ছিল না রমেশের কাছে। কিন্তু তার মনে কথাটা গেঁথে যায়। তিনি তখনই ঠিক করেন স্ত্রীর হেলিকপ্টারে চড়ার ইচ্ছা পূরণ করবেন।

রমেশ মীন স্কুলের শিক্ষকতা থেকে অবসর নেন ৩১ আগস্ট। তার বিদায় অনুষ্ঠানে স্কুলেই ছিলেন স্ত্রী। বাড়ি ফেরার সময় স্ত্রীকে বলেন, চলো আকাশে উড়ি!

স্ত্রীর ইচ্ছা পূরণ করতে নয়াদিল্লির একটি সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করেন রমেশ। সেখান থেকে জানানো হয় হেলিকপ্টারের ভাড়া পড়বে ৩ লাখ ৭০ হাজার টাকা। রাজি হয়ে যান রমেশচন্দ মীনা।

মাত্র ১৮ মিনিটের উড়ান ছিল। হেলিকপ্টার থেকে নেমে রমেশ বলেন, অল্প সময় হলেও এটা আমার জীবনের অন্যতম সেরা দিন। স্মরণীয় অভিজ্ঞতা হয়ে থাকবে।

মন্তব্য