| প্রচ্ছদ

শেরপুরে দেশী মুরগীর খামার পরিদর্শনে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ২৬৯ বার। প্রকাশ: ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

স্বল্প বিনিয়োগে দেশি মুরগীর খামার গড়ে টেকসই কর্মসংস্থান তৈরী করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার মো. নূর-উর-রহমান।  সোমবার বিকেলে বগুড়ার শেরপুরে প্রাণি সম্পদ দফতরের সহযোগিতায় উপজেলার গাড়ীদহ ইউনিয়নের চকপাথালিয়া গ্রামস্থ ‘স্বপ্ন ছোঁয়ার সিড়ি’ উদ্যেক্তা পাঠশালা ও দেশী মুরগীর খামার পরিদর্শনে এসে এই মন্তব্য করেন তিনি।

এসময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. ফয়েজ আহাম্মদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. লিয়াকত আলী সেখ, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. আরাফাত হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাহজামাল সিরাজী, প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা আমির হামজা, ভেটেরিনারী সার্জন ডা. মো. রায়হান, শেরপুর থানার ওসি মো. হুমায়ুন কবির, স্থানীয় গাড়ীদহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দবির উদ্দীন, খামারি সাদ্দাম হোসেন, জাকারিয়া হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এরপর বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমান উপজেলার খন্দকারটোলা, ধর্মকাম, শুভগাছা ও শেরুয়া গ্রামে গড়ে উঠা বিভিন্ন দেশী মুরগীর খামারও পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি আরও বলেন, দেশে বাণিজ্যিক ভিত্তিক দেশী মুরগি চাষ একটি সম্ভাবনাময় ও লাভজনক সেক্টর। তাই এ খাতকে আরও সম্প্রসারণ করার মাধ্যমে বেকার নারী-পুরুষের কর্মসংস্থান তৈরী করতে হবে। বিশেষ করে বাণিজ্যিক ভিত্তিক দেশী মুরগীর খামার গ্রামীণ দারিদ্র বিমোচনের অন্যতম হাতিয়ার হতে পারে। বর্তমান সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে যেসব পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন তারই একটি নিদর্শন দেখিয়েছেন উদ্যোক্তা ও উপজেলা ভেটেরিনারি সার্জন ডা. মো. রায়হান পিএএ।

এছাড়াও বিভাগীয় কমিশনার এই উপজেলায় চলমান গ্রামীন অবকাঠামো সংস্কার (কাবিটা) কর্মসূচীর আওতায় দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ প্রকল্পের একটি বাড়ী ও চকপাথলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন।


 

মন্তব্য