| প্রচ্ছদ

শাহ সুলতানের বাসের ধাক্কায় আঃ হক কলেজের শিক্ষার্থী আহত

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ৪৪৯ বার। প্রকাশ: ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

বগুড়ায় সরকারি শাহ সুলতান কলেজের বাসের ধাক্কায় আজিজুল হক কলেজের এক শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছেন। যুবাইর আহমদ নিয়াম(১৭)নামে গুরুতর আহত ওই শিক্ষার্থী মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। সোমবার সকাল ৯টায় ঠনঠনিয়া বাস স্ট্যান্ডের সামনে ভুল রুট থেকে আসা সরকারি শাহ সুলতান কলেজের বাসের ধাক্কায় ওই শিক্ষার্থী আহত হন। আহত নিয়াম শহরের লতিফপুর দক্ষিণপাড়ার জাহিদুল ইসলাম মুজাহিদীর ছেলে। সে সরকারি আজিজুল হক কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের ব্যবসায় শাখার সেকেন্ড ইয়ারের শিক্ষার্থী। ডাক্তার জানিয়েছেন, নিয়াম তার চোয়ালে এবং বাম হাতের কব্জিতে মারাত্বক আঘাত পেয়েছে।

নিয়ামের বাবা জাহিদুল ইসলাম মুজাহিদী জানান, তার ছেলে সাইক্লিস্ট। তাই সাইকেল নিয়েই সাধারণত কলেজে যাতায়াত করে। গত সোমবার সকালে ঠনঠনিয়া বাস টার্মিনালের সামনে জ্যাম ছিল। ফাঁকা থাকায় সে সাতমাথার দিকে যাওয়া রাস্তা দিয়ে  একটু স্পীডে সাইকেল চালিয়ে কলেজে যাচ্ছিল। হঠাত করেই ভুল রুটে সরকারি শাহ সুলতান কলেজের ২ নং বাস তার সামনে চলে আসে। সেখানে কিছু বুঝে উঠার আগেই নিয়ামের সাইকেলের সাথে ওই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সেখানেই নিয়াম অজ্ঞান হয়ে পড়ে এবং মুখ দিয়ে প্রচুর রক্ত ঝরে। সেখান থেকে কিছু মানুষ তাকে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে কোন ডাক্তার না থাকায় পরীক্ষার জন্য সে রিকশা করে একাই কলেজে যায়। তার  এরকম অবস্থা দেখে শিক্ষকেরা দ্রুত মোহাম্মদ আলী হাসপাতালেই তাকে ভর্তি করার ব্যবস্থা করে দেন।

এই নিয়ে সরকারি আজিজুল হক কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক ভবনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুব্রত কুমার সাহা বলেন, ‘ভুল রুটে গাড়ী চালানো কখনই সমর্থন করি না। ঘটনা সত্য হলে এর সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানাই এবং কলেজ প্রশাসন এইক্ষেত্রে ওর পাশে থেকে সার্বিক সহায়তাও করবে’।

এই নিয়ে শাহ সুলতান কলেজের অধ্যক্ষকে মোবাইলে বার বার যোগাযোগ করা হলেও সংযোগ স্থাপন করা যায়নি। 

মন্তব্য