| প্রচ্ছদ

মুশফিক কি আউট ছিলেন?

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪১ বার। প্রকাশ: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

লিটন দাসকে তিনে নামিয়েই ব্যাটিং অর্ডারে গড়বড় করে ফেলে বাংলাদেশ দল। সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমকে তাই ব্যাট করতে নামতে হয় ছয়ে। ততক্ষণে বাংলাদেশ চার উইকেট হারিয়ে চাপে। সাকিব ১১ রানে ফিরে গেলে ৮৮ রানে চার উইকেট হারায় বাংলাদেশ। মুমিনুলের সঙ্গে মুশফিককে ক্রিজে দাঁড়িয়ে তখন দলের ভার টানতে হতো। কিন্তু বিতর্কিত এক আউটে ওই ৮৮ রানেই ডাক মেরে ফেরেন মুশফিক। দল পড়ে যায় ফলো অনের শঙ্কায়।

বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসের ৩৩তম ওভারের চতুর্থ বলে আউট হন সাকিব। লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন তিনি। রিভিউ নিয়েও লাভ হয়নি। দুই বল বাদেই আউট হন মুশফিক। রশিদের বলটি রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে খেলেন তিনি। বল ব্যাটে লেগে মুশফিকের জুতায় লেগে চলে যায় শর্টে থাকা আফগান ফিল্ডার ইব্রাহিম জাদরানের হাতে। আউটের আবেদন করেন তিনি।

কিন্তু মাঠে থাকা আম্পায়ার নিশ্চিত ছিলেন বল মাটি ও জুতা ছুয়ে হাতে গেছে। নাকি সরাসরি জুতায় পড়ে ইব্রাহিমের হাতে এসেছে। থার্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে যান মাঠে থাকা আম্পায়ার। এরপর টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বল মাটিতে পড়েছে কি-না নিশ্চিত বোঝার উপায় নেই।  আবার জুতা থেকেও হাতে এসেছে এমন স্পষ্টও নন টিভি আম্পায়ার। কিন্তু অবাক করে ব্যাটসম্যানের বিপক্ষেই সিদ্ধান্ত দেন টিভি আম্পায়ার নিতিন মেনন। বিতর্কিত ওই সিদ্ধান্তে শূন্য রানে মাঠ ছাড়তে হয় মুশফিকের।

মন্তব্য