| প্রচ্ছদ

বগুড়ার ধুনটে ভ্যান চালকের ধর্ষন চেষ্টার শিকার চার শিশু !

আমিনুল ইসলাম শ্রাবণ. ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ২২৯ বার

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় প্রাথমিক স্কুল পড়ুয়া চার শিশুকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে জয়নাল আবেদীন (৫২) নামের এক ভ্যান চালককে পুলিশ আটক করেছে। মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় মথুরাপুর বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সে মথুরাপুর ইউনিয়নের গোপালপুর খাদুলী গ্রামের মৃত ফজর আলীর ছেলে। 

পুলিশ জানায়, গোপালপুর খাদুলী গ্রামের জয়নাল আবেদীন পেশায় একজন ভ্যান চালক। সে গত শুক্রবার বাদ জোহর ৮ বছর বয়সি প্রতিবেশি দুই নাতনিকে ফুঁসলিয়ে নিজের ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের খেলার ছলে ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। ওই দুই শিশু স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

এদিকে গত রোববার দুপুর ১ টায় জয়নাল আবেদীন ৬ বছর বয়সি আরো দুই শিশুকে ফুঁসলিয়ে নিজের ঘরে নিয়ে যায়। ওই দুই শিশু স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সম্পর্কে জয়নাল আবেদীনের প্রতিবেশী ভাগ্নি। নিজের ঘরে খেলার ছলে ওই দুই শিশুকেও ধর্ষনের চেষ্টা করে জয়নাল। তার পাশবিক নির্যাতনে শিশুরা অসুস্থ্য হলে পরিবারের লোকজন উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে।

এক পর্যায়ে তারা শিশুদের সাথে কথা বলে জয়নাল আবেদীনের ধর্ষন চেষ্টার ঘটনা জানতে পারেন। এ ঘটনার সূত্রধরে শুক্রবারে তার পাশবিক নির্যাতনের শিকার আরো দুই শিশুর ঘটনাও প্রকাশ পায়। পরে এ ঘটনায় অভিভাবকরা ধুনট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সকাল ৯টায় মথুরাপুর বাজার এলাকা থেকে পুলিশ জয়নাল আবেদীনকে আটক করেছে। 

নির্যাতনের শিকার শিশুদের অভিভাবকগণ অভিযোগ করেন, জয়নাল আবেদীন ফাঁকা বাড়িতে শিশুদের ফুঁসলিয়ে নিয়ে যায়। সেখানে ‘বাসর রাত’ নামের খেলার ছলে শিশুদের ধর্ষনের চেষ্টা করেছে। 

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, 'প্রাথমিক বিদ্যালয় পড়ুয়া চার শিশুকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগের ভিত্তিতে ভ্যান চালক জয়নাল আবেদীনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে নিজের অভিযোগ স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া তার পাশবিক নির্যাতনের শিকার শিশুদের ডাক্তারী পরীক্ষা ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।' 

মন্তব্য