| প্রচ্ছদ

আরদা তুরানকে ৩২ মাসের কারাদণ্ড

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৯ বার

তুরস্ক এবং বার্সেলোনার মিডফিল্ডার আরদা তুরানকে ৩২ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে তুরস্কের একটি আদালত। নৈশক্লাবে পপ তারকাকে আঘাত করা, এরপর হাসপাতালে গুলি চালানো, বেআইনি অস্ত্র রেখে ভীতি প্রদশর্নের কারণে তাকে দুই বছর ৮ মাসের সাজা দিয়েছে আদালত। তবে জেলে যেতে হচ্ছে না ধারে ইস্তাম্বুল বাসাকসেহিরেতে খেলা এই ফুটবলারকে।

আগামী ৫ বছরের মধ্যে তুরান যদি আবার অপরাধমূলক কাজে জড়ান তবে রেহাই দেওয়া হবে না বলে তাকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। আরদা তুরান ধারের শর্তে বার্সেলোনা থেকে তুরস্কের ক্লাব ইস্তাম্বুলে খেলছেন। গত বছর সেখানে একটি নাইটক্লাবে পপ তারকা বার্কে শাহিনের নাক ফাঁটিয়ে দেন তিনি।

ওখানেই শেষ নয়, বার্কে শাহিনকে হাসপাতালে নেওয়া হলে তুরান সেখানে গিয়ে মেঝেতে গুলি চালান। যা সাধারণ মানুষের মনে ভীতি সঞ্চার করে। এ কারণে তার ক্লাব ইস্তাম্বুল তুরানকে প্রায় সাড়ে চার লাখ মার্কিন ডলার জরিমানা করে। তুরান পপ তারকা শাহিনের স্ত্রীকে যৌন হেনস্তা করেছেন বলেও অভিযোগ ওঠে। তবে ওই মামলা থেকে রেহাই পেয়েছেন তুরান। তুরস্ক মিডফিল্ডার ইনস্টাগ্রামে ঘটনার দায় স্বীকার করে পরিবার ও ক্লাবের কাছে ক্ষমাও চান।

২০১৫ সালে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ থেকে ৩৪ মিলিয়ন ইউরোতে বার্সেলোনায় আসেন তুরান। বার্সার জার্সিতে ৫৫ ম্যাচে ১৫ গোল করেন তিনি। অবদান রাখেন চারটি ট্রফি ঘরে তুলতে। এরপর ২০১৭-১৮ মৌসুমে বার্সেলোনা থেকে ধারে নিজ দেশের ক্লাব ইস্তাম্বুলে আসেন।

মন্তব্য