| প্রচ্ছদ

‘৫০০ নয়, সংখ্যাটা হবে ৫,০০০ বা তার বেশি’

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৯ বার। প্রকাশ: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, সরকারি এক তালিকায় নাকি ৫০০ চাঁদাবাজ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর নাম আছে। আসলে ৫০০ নয়, সংখ্যাটা ৫,০০০ বা তার চেয়েও বেশি হবে।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব) এই মানববন্ধনের আয়োজন করে।

ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, ‘যুবলীগ, ছাত্রলীগ তথা ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ গত ১০ বছর মানুষের ওপর যে অত্যাচার, নির্যাতন, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি চালিয়েছে, ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদককে (শোভন-রাব্বানী) অপসারণের মধ্য দিয়ে তাদের সেই অপশাসনের মুখোশ সম্পূর্ণভাবে খুলে গেছে।’

তিনি বলেন, ‘আজকে বিরোধী দল নাই। তারপরও সরকার এমন অবস্থায় পড়েছে যে, বাধ্য হয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদককে অপসারণ করতে হয়েছে। কারণ তারা বড় ধরনের অর্থ কেলেঙ্কারি, দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত।’ খবর অনলাইন দেশ রুপান্তর

‘সরকার নাকি একটি তালিকা বের করেছে, সেই তালিকায় নাকি লেখা আছে- ৫০০ জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী চাঁদাবাজি করছে। এটা আসলে ৫০০ নয়, সংখ্যাটা ৫০০০ হবে বা তার চেয়েও বেশি হবে’ যোগ করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য।

আইনি প্রক্রিয়ায় খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব নয়- আবারও এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘আমরা অনেক চেষ্টা করেছি। এক বছর সাত মাস ধরে তিনি কারাগারে বন্দি। একটি বানোয়াট মিথ্যা মামলায় তাকে সাজা দেওয়া হয়েছে।’

‘তার শরীর খুবই খারাপ। কিন্তু তারপরও এই অমানবিক সরকার বিভিন্ন কৌশলে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে আদালতকে সম্পূর্ণরূপে প্রশাসনের অধীনে নিয়ে বেগম জিয়ার জামিন প্রক্রিয়া বারবার বাধাগ্রস্ত করছে। কারণ, বেগম জিয়া ও তার জনপ্রিয়তাকে এই সরকারের সবচেয়ে বেশি ভয়’ যোগ করেন ব্যারিস্টার মওদুদ।

মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া, সহ-প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, সহ-তথ্যবিষয়ক সম্পাদক সাংবাদিক নেতা কাদের গনি চৌধুরী প্রমুখ।

মন্তব্য