| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় নিখোঁজ এনজিও কর্মকর্তার লাশ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ১২২ বার। প্রকাশ: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

বগুড়ার কাহালু এলাকা থেকে শাহরিয়ার হোসেন (৪৫) নামে নিখোঁজ হওয়া এনজিও কর্মকর্তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।  বৃহস্পতিবার সন্ধায় তার লাশ কাহালু উপজেলা সদরের দামাই গ্রামের এশটি বাড়ী থেকে উদ্ধার করে। দুবৃর্ত্তরা তার মাথায় আঘাত করে হত্যার পর মাথা ও মুখ মন্ডল থেতলে দেয়।  তিনি ঝিনাইদহ জেলার শৈলগোপাল এলাকার মনির হোসেনের ছেলে। তিনি বগুড়ার কাহালু উপজেলায় উদ্দীপন নামে একটি এনজিও’র ঋণ কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।


পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান মঙ্গলবার দুপুরেতিনি কিস্তি আদায় করে কাহালু সদরে এনজিও অফিসে ফেরার সময় নিখোঁজ হন।  এরপর তার ব্যবহৃত মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। মোটরসাইকেলটির হদিস পাওয়া যায়না।  পরে এনজিওর পক্ষে থেকে কাহালু থানায় ওইদিন সন্ধায় একটি জিডি করা হয়। পুলিশ জিডির সূত্র ধরে তার সন্ধানে নেমে পড়ে। এক পর্যায়ে পুলিশ লোকমূখে খবর পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধা ৬টার দিকে তার লাশ দামাই এলাকার একটি বাড়ী থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। ওই বাড়ীতে ২ জন পুরুষ ব্যাসেলর ভাড়াটিয়া ছিল তারা লাপাত্তা হয়ে যায়। হত্যাকারীরা তার মোটরসাইকেল এবং সঙ্গে থাকা প্রায় ৫০ হাজার টাকা নিয়ে গেছে।পুলিশের ধারনা ওই বাড়ীতে তাকে কৌশলে ডেকে নিয়ে গিয়ে মাথায় আঘাত করে হত্যার পর লাশ থেতলে দেয়া হয়।


কাহালু থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম বলেন নিখোঁজ এনজিও কর্মকর্তার লাশ বাড়ীর ভিতর একটি কক্ষে পাওয়া গেছে। লাশের মাথায় আঘাতের চিহৃ রয়েছে।
 

মন্তব্য