| প্রচ্ছদ

‘ভারতে যে কোনো মুহূর্তে ঢুকে যেতে পারে সন্ত্রাসীরা’

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩৫ বার। প্রকাশ: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের বালাকোট সীমান্ত দিয়ে ৫০০ সন্ত্রাসী ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছে। যে কোনো মুহূর্তে তারা ভারতে ঢুকে তারা নাশকতা চালাতে পারে। এমনটাই দাবি করেছেন ভারতের সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত।

সোমবার চেন্নাইয়ে অফিসার্স ট্রেনিং অ্যাকাডেমিতে সাংবাদিকদের তিনি জানান, বালাকোট দিয়ে ৫০০ সন্ত্রাসী ভারতে অনুপ্রবেশের জন্য অপেক্ষা করছে।

এজন্য পাকিস্তানকে দায়ী করেন ভারতীয় সেনাপ্রধান বলেন, পাকিস্তান সম্প্রতি বালাকোটের জঙ্গিদের নতুন করে অনুপ্রবেশের জন্য তৈরি করছে। কারণ, ভারতের হামলার পর বালাকোট প্রায় সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। মানুষ ওই এলাকা ছেড়ে পালিয়েছিল। ওই অঞ্চল পুনরুজ্জীবিত করছে পাকিস্তান। পালিয়ে যাওয়া সন্ত্রাসীরা আবার ফিরছে বালাকোটে।

বালাকোটে ধ্বংস হয়ে যাওয়া কয়েকটি সন্ত্রাসী আস্তানা নতুন করে নির্মাণের কথা রোববারই ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলো জানিয়েছিল। সোমবার সেনাপ্রধান বিষয়টি স্পষ্ট করে হামলার আশঙ্কার কথাই জানালেন।

কাশ্মীর নিয়ে ভারতের পদক্ষেপকে সামনে রেখে জইশ-ই- মোহাম্মদের হামলার আশঙ্কায় রয়েছে তারা। শুধু জম্মু ও কাশ্মীর নয়, গুজরাট ও মহারাষ্ট্রও জইশের টার্গেটে রয়েছে।

গোয়েন্দা সূত্রে আরও জানা গেছে, ভারতে অনুপ্রবেশের জন্য পুঞ্চ ও রাজৌরি সেক্টরের ওপারে থাকা লঞ্চ প্যাডগুলোতে ইতিমধ্যেই অন্তত ১০০ জঙ্গিকে জড়ো করা হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীরে হামলা চালানোই তাদের লক্ষ্য।

মন্তব্য