| প্রচ্ছদ

ভ্রমণ ভিসা দেবে সৌদি আরব

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩১ বার। প্রকাশ: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

প্রথমবারের মতো সৌদি আরব সরকার পর্যটন ভিসা (টুরিস্ট ভিসা) দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই ভ্রমণ ভিসা দেয়ার মাধ্যমে তেলের বিকল্প হিসেবে দেশের অর্থনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করতে চায় দেশটি। বিদেশিদের ভ্রমণ ভিসা দেওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। শনিবার থেকে এর আবেদন শুরু হবে। বিশ্ব পর্যটন দিবসে সৌদি আরবে পর্যটন ভিসা দেওয়ার সিদ্ধান্তটি ভ্রমণপিপাসুদের জন্য সুখবর। 

এর আগে দেশটিতে সৌদি আরবে কেবল প্রবাসী শ্রমিকদের প্রবেশাধিকার আছে। এ ছাড়া মক্কা -মদিনার পবিত্র স্থানগুলো মুসলিমদের জন্যই সীমিত করা ছিল।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ‘ভিশন ২০৩০’ নামক সংস্কার কর্মসূচির অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু পর্যটনশিল্প। তাই সৌদি আরব সরকার পর্যটন ভিসা (টুরিস্ট ভিসা) দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সৌদি আরবের তেল স্থাপনায় হামলার পর বৈশ্বিক বাজারে তেলের দামে বেশ প্রভাব পড়েছে। তাই হামলার মাত্র দুই সপ্তাহ পরেই এ ঘোষণা এসেছে।

পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রধান আহমেদ আল-খতিব এক বিবৃতিতে বলেছেন, আমাদের রয়েছে ইউনেসকোর পাঁচটি বিশ্ব ঐতিহ্য (ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট), আকর্ষণীয় সংস্কৃতি ও মনোরম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। প্রাকৃতিক ও ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা বা স্থানগুলো দেখে দর্শনার্থীরা মুগ্ধ হবেন। বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের জন্য সৌদি আরবের দ্বার উন্মুক্ত হ্ওয়া আমাদের জন্য এক ঐতিহাসিক মুহূর্ত।

খতিবের বরাতে ব্লুমবার্গ নিউজ জানিয়েছে, ৪৯টি দেশের নাগরিকেরা শনিবার থেকে সৌদি আরবে ভ্রমণ ভিসার আবেদন করতে পারবেন। অনলাইনে এই আবেদন করা যাবে।

পোশাকের কঠোর নীতি সৌদি আরবের সরকার শিথিল করবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিদেশি নারীদের জন্য পোশাকের কঠোর নীতি শিথিল করবে দেশটির সরকার। তবে সৌদি নারীরা পুরো শরীর ঢাকা আবায়া ছাড়াও ঘুরতে পারবেন। তবে তাদের মার্জিত পোশাক পরতে হবে।

মন্তব্য