| প্রচ্ছদ

নওগাঁয় বাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় ৪৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ১

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ)
পঠিত হয়েছে ৩৪ বার। প্রকাশ: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

নওগাঁর রাণীনগরে বাড়িতে প্রবেশের রাস্তাকে কেন্দ্র করে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে বাড়ী ভেঙ্গে দেয়ার ঘটনায় মোট ৪৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে জাকির হোসেন (৩২) নামে এজাহার নামীয় একজনকে গ্রেফতার করেছে। জাকির উপজেলার পশ্চিম গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত জনাব আলীর ছেলে।

জানা গেছে, ঝিনা গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে শাদ আহম্মেদ স্বপন তার নিজ জায়গার সিমানা ঘেষে একটি বাড়ী নির্মান করে। এরপর ওই গ্রামের লাল মোহাম্মদের ছেলে মুন্টু প্রাং তার পৈত্রিক সম্পত্তিতে আরসিসি পিলার দিয়ে ইটের বাড়ি নির্মাণ শুরু করে। বাড়ি নির্মাণের শুরুতে পর্যাপ্ত জায়গা ছেড়ে দিয়ে কাজ শুরু করলেও প্রতিবেশী শাদ আহম্মেদ স্বপন তার বাড়িতে যাওয়া-আসার জন্য চার/পাঁচ হাত জায়গা ছেড়ে বাড়ি নির্মানের দাবি জানায়। এ নিয়ে শেষ পর্যন্ত আদালত পর্যন্ত গড়ায়। এর পরেও মুন্টু তার বাড়ি নির্মাণ কাজ চালিয়ে যান। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার মুন্টুর বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে স্বপনের নেতৃত্বে দুপুরের দিকে দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে আরসিসি পিলার গ্যান্ডার মেশিন দিয়ে কেটে ও ভাড়ি হামবল দিয়ে ইটের দেয়াল ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়।

খবর পেয়ে বাড়ির মালিক মন্টুসহ তার পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে দেখতে পায় তাদের নির্মানাধীন বাড়ি ভেঙ্গে দিয়ে স্বপনসহ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা চলে গেছে। এই ঘটনায় মুন্টু প্রামানিক বাদী হয়ে শাদ আহম্মেদ স্বপনহ ১৩ জনকে এজাহার নামীয় এবং আরো অন্তত ৩০/৩৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে বৃহস্পতিবার রাতেই রাণীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে জাকির হোসেন নামের এজাহার নামীয় একজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ শুক্রবার আদালতে প্রেরণ করেছে।
রাণীনগর থানার ওসি জহুরুল হক বলেন, 'বাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় মুন্টু প্রামানিক বাদী হয়ে মোট ৪৮ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেছেন। এই ঘটনায় এজাহার নামীয় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে । এছাড়া জরিতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।'  

মন্তব্য