| প্রচ্ছদ

দায় নিলেও খাশোগিকে হত্যার নির্দেশ দেননি দাবি যুবরাজের

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৪ বার। প্রকাশ: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার দায় নিলেও এ ঘটনার নির্দেশ দেননি সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় টিভি প্রোগ্রাম সিক্সটি মিনিটসে এমনটা দাবি করেন তিনি।

মিডল ইস্ট আই জানায়, খাশোগি হত্যাকাণ্ডের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে ধারণকৃত ওই টিভি প্রোগ্রামে এ নিয়ে কথা বলেন সৌদি যুবরাজ।

তিনি বলেন, ‘যেহেতু তার দায়িত্বের অধীনেই সৌদি সরকারের কিছু লোক এ ঘটনা ঘটিয়েছে, এ জন্য এর পুরোপুরি দায়ও তার।’

তবে খাশোগিকে হত্যাকাণ্ডের নির্দেশের বিষয়টি তিনি আবারও অস্বীকার করেন।

রবিবার সন্ধ্যায় প্রচারিত ওই সাক্ষাতকারে সৌদি যুবরাজ বলেন, ‘যদি আমাকে অভিযুক্ত করা যায় এমন কোনো তথ্য থাকে তাহলে সেটি প্রকাশ্যে আনা হোক।’

তুরস্কের তদন্তে এ হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনাকারী হিসেবে শুরুতেই নাম উঠে আসে সৌদি যুবরাজের। যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএর প্রতিবেদনেও ওঠে আসে, এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান জড়িত। তার নির্দেশেই খাশোগিকে হত্যা করা হয়। তখনও এই অভিযোগ অস্বীকার করেন সৌদি যুবরাজ।

২ অক্টোবর খাশোগি হত্যাকাণ্ডের এক বছর পূরণ হবে। এ উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের পিভিএস চ্যানেলের একটি ডকুমেন্টারিতেও সৌদি যুবরাজ বলেন,  ‘এটা আমার দায়িত্বের অধীনে হয়েছিল। এ হত্যাকাণ্ডের সব দায় আমার।’

  সৌদি যুবরাজের কড়া সমালোচক ছিলেন ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট খাসোগি। বিয়ের কাগজপত্রের জন্য তুরস্কের ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে গেলে সেখানে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন তিনি।

এমনকি তার দেহ কেটে ছিন্ন-বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হয় এবং গোপন জায়গা তা সরিয়ে ফেলা হয় বলেও সে প্রতিবেদনে ওঠে আসে।

রিয়াদ থেকে যাওয়া ১৫ সদস্যের একটি ডেথ স্কোয়াড খাশোগিকে হত্যা করে। তবে সৌদি যুবরাজের সম্পৃক্ততা অস্বীকার করে রিয়াদ জানায়, বিপথগামী কিছু এজেন্ট এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। পরবর্তীতে এ বছরের শুরুতে ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে সৌদি সরকার।

মন্তব্য