| প্রচ্ছদ

‘বাঁচা-মরার’ ম্যাচে জ্বললেন সাকিব, প্লেঅফে বার্বাডোজ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৪ বার। প্রকাশ: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ।

ব্যাট হাতে তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। শুরুর ধাক্কা সামাল দেয়া ‘হিসেবি’ জুটির অধিকারী। আর বল হাতে যা করলেন, তাতে দলের পক্ষ থেকে ম্যাচ শেষে পেলেন ‘মি. ইকোনোমিক্যাল’ উপাধি। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের এমন আলো ছড়ানোর দিনে আগের ম্যাচের মতো আর পথ হারায়নি বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস।

সোমবার সকালে ব্রিজটাউনের কেনসিংটন ওভালে সেন্ট লুসিয়াকে ২৪ রানে হারিয়ে সাকিবরা হিরো ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের প্লেঅফে উঠে গেছেন। আগের ম্যাচে এক রানে হেরে যাওয়ায় এদিন সাকিবদের জিততেই হতো।

বার্বাডোজ টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে দলটি ১৪১ রান সংগ্রহ করে। সাকিব ২১ বলে ১০৪.৭৬ স্ট্রাইকরেটে ২২ রান করেন। এর ভেতর চারের মার ছিল দুটি। আর বল হাতে ৪ ওভারে ২০ রান দিয়ে ১ উইকেট নেওয়ার পর বার্বাডোজের ফেইসবুক পেজ থেকে পান ‘মি. মিতব্যয়ী’ আখ্যা।

অথচ তাদের শুরুটা এতটুকু ভালো ছিল না। প্রথম ওভারের শেষ বলে কোনো রান না করেই বিদায় নেন অ্যালেক্স হেলস। তবে আরেক ওপেনার জনসন চার্লস এবং সাকিব দারুণ একটি জুটিতে শুরুর এই ধাক্কা সামলে নেন। ৩৬ বলে ৪৭ রান করেন জনসন।

সাকিব ব্যাট করতে আসেন তিন নম্বরে। ওপেনারের সঙ্গে ৬২ রানের জুটি গড়েন তিনি।

সাকিব-জনসন জুটি ভাঙার পর পাঁচ নম্বর ব্যাটসম্যান জাস্টিন গ্রাভস দলীয় স্কোর বড় করেন। ২৮ বলে ২৭ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি।

বল হাতে সাকিবসহ সবাই ভালো করেছেন। হেডেন ওয়ালশ ৩.৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ২৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন। হ্যারি গুর্নে ৩ উইকেট নিতে খরচ করেন ১৭ রান। তিনি করেন ৪ ওভার।

মন্তব্য