| প্রচ্ছদ

‘ঢাবির হলগুলোতে সিটবাণিজ্য হয়, এটি লজ্জার’

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৪ বার। প্রকাশ: ০১ অক্টোবর ২০১৯ ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে সিটবাণিজ্য হয় অভিযোগ করে রাকিব নামে এক শিক্ষার্থী বলেছেন, ‘সিট দেয়ার নামে এখানে বাণিজ্য হয়, এটি লজ্জার।’

এসএম হলের প্রথম বর্ষের এই শিক্ষার্থী বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সময়ই আমাকে হল সংযুক্ত করে দেয়া হয়। সুতরাং আমি হলের একজন বৈধ ছাত্র। কিন্তু একজন বৈধ ছাত্র হয়েও আমাকে হলের বারান্দায় গাদাগাদি করে থাকতে হয়।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজু ভাস্কর্যের সামনে বিভিন্ন হলের গণরুমের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

গণরুমের কষ্ট থেকে মুক্তি পেতে আজ থেকে আন্দোলেন নেমেছেন শিক্ষার্থীরা। এতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন ডাকসুর সদস্য তানভীর হাসান সৈকত।

আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে গণরুমের সমস্যা সমাধান না হলে উপাচার্যের বাসায় ওঠার হুমকি দেয়া হয়েছে আজকের সমাবেশ থেকে।

সমাবেশে আইন বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী আরিফুল ইসলাম বিজয় বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ এমন হয় সেটি আমরা ভর্তির আগে কখনও ভাবিনি। আমাদের গণরুমগুলোতে পড়ার কোনো চেয়ার-টেবিল নেই, থাকার জায়গা হয় না। আবার লেজুড়বৃত্তিক রাজনীতির পেছনে অধিকাংশ সময় দিতে হয়।’

সূর্যসেন হলের ছাত্র হাবিবুর রহমান মিশু বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে আমরা এখন পর্যন্ত প্রত্যাশার ছিটেফোঁটাও পাই না।’

মন্তব্য