| প্রচ্ছদ

গৃহবন্দিত্ব থেকে মুক্ত জম্মুর নেতারা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৪ বার। প্রকাশ: ০২ অক্টোবর ২০১৯ ।

প্রায় দুই মাস গৃহবন্দি থাকার পর অবশেষে মুক্তি পেলেন ভারতের জম্মুর রাজনৈতিক নেতারা। 

সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে রাজ্যকে দু'টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার ব্যাপারে সরকারের পদক্ষেপের পর থেকে জম্মু ও কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতাদের আটক করা হয়। অবশেষে জম্মুর রাজনৈতিক নেতাদের বন্দিদশা ঘুচলো। খবর এনডিটিভির। 

তবে কাশ্মীরের পরিস্থিতি এখনও একই রয়েছে। সেখানকার রাজনৈতিক নেতারা এখনও গৃহবন্দি রয়েছেন। 

সরকারি সূত্র জানিয়েছে, সামনে ব্লক উন্নয়ন কাউন্সিলের নির্বাচনের কারণে জম্মুর নেতাদের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছে। এই নির্বাচন পঞ্চায়েতরাজ ব্যবস্থার দ্বিতীয় পর্যায়। ক'দিন আগেই ব্লক উন্নয়ন কাউন্সিলের নির্বাচনের ঘোষণা করেছে সরকার।

সরকারি সূত্রে জানা গেছে, জম্মু এখন শান্ত। সোমবার জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্য নির্বাচ‌নী আধিকারিক নির্বাচনের কথা ঘোষণা করার পরই রাজনৈতিক নেতাদের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার কথা জানানো হয়।

জম্মুতে গৃহবন্দি অবস্থা থেকে মুক্তিপ্রাপ্তরা হলেন-দেবেন্দর সিংহ রানা, রমন ভাল্লা, হর্ষদেব সিংহ, চৌধুরীলাল সিংহ, ভিকার রসুল, জাভেদ রানা, সুরজিৎ সিংহ স্লাথিয়া ও সাজ্জাদ আহমেদ কিচলু।

৩৭০ ধারা বাতিলের পর রাজ্যের প্রায় ৪০০ রাজনৈতিক নেতাকে হয় আটক, নয়তো গৃহবন্দি করা হয়। তাদের মধ্যে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি, ওমর আবদুল্লা, ফারুক আবদুল্লাও রয়েছেন। 

গত ৫৭ দিন ধরে কাশ্মীর উপত্যকার যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন। নেই ইন্টারনেট পরিষেবাও।

আগামী ২৪ অক্টোবর ৩০০টি ব্লক উন্নয়ন কাউন্সিলের নির্বাচন। ওইদিনই গণনা হবে। ২৬ হাজার পঞ্চায়েত সদস্য ভোট দেবেন।

মন্তব্য