| প্রচ্ছদ

ভারতে ইসরোর বিজ্ঞানীর রহস্যজনক মৃত্যু

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩৫ বার। প্রকাশ: ০২ অক্টোবর ২০১৯ ।

ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো’র একজন বিজ্ঞানীর মৃত্যুকে ঘিরে রহস্য সৃষ্টি হয়েছে। মঙ্গলবার হায়দরাবাদের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ওই বিজ্ঞানীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, এস সুরেশ নামে ৫৬ বয়সী ওই বিজ্ঞানী মঙ্গলবার অফিসে না আসায় তার সহকর্মীরা তাকে ফোন করেও কোনও সাড়া পাননি। বারবার ফোন করেও সাড়া না মেলায় সুরেশের স্ত্রী ইন্দিরাকে ফোন করেন ওই সহকর্মীরা।

খবর পেয়ে ইন্দিরা ও তার আত্মীয়রা দ্রুত হায়দরাবাদে আসেন এবং পুলিশে খবর দেন। এরপর পুলিশ এসে দরজা ভেঙে সুরেশের মৃতদেহ উদ্ধার করেন।

এস সুরেশ ইসরোর ন্যাশনাল রিমোট সেন্সিং সেন্টারে (এনআরএসসি) কর্মরত ছিলেন। পুলিশের ধারণা, ভারী কিছু দিয়ে তার মাথায় আঘাত করার কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনা তদন্ত করছে পুলিশ। সুরেশের বাড়ির সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হবে বলে জানানো হয়েছে।

নিজের ফ্ল্যাটে অজ্ঞাত কেউ হত্যা করে রেখে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কে বা কারা, কী উদ্দেশ্যে বিজ্ঞানীকে খুন করল, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

গত কয়েকদিন আগেই চাঁদে নামতে গিয়ে ভারতের মহাকাশযান ‘চন্দ্রযান-২’ নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে মাত্র ২ দশমিক ১ কিলোমিটার দূরে থাকাবস্থায় একেবারে শেষ মুহূর্তে ল্যান্ডার বিক্রম অরবিটারের সঙ্গে সংযোগ হারিয়ে ফেলে।

এতে ‘চন্দ্রযান-২-এর সঙ্গে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (ইসরো) যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ভারতের ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারেননি মহাকাশবিজ্ঞানীরা।

মন্তব্য