| প্রচ্ছদ

মুজিববর্ষে খেলাধুলা আয়োজনে ৩০৬ কোটি টাকা চায় মন্ত্রণালয়

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৯ বার। প্রকাশ: ০২ অক্টোবর ২০১৯ ।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ৮৯টি টুর্নামেন্ট আয়োজন করবে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে ৫০টি জাতীয় এবং ৩৯টি হবে আন্তর্জাতিক। এ জন্য ৩০৬ কোটি ২৩ লাখ টাকা বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে।

বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকের কার্যপত্র থেকে এই তথ্য জানা গেছে। ক্রীড়া সচিবকে আহ্বায়ক করে গঠিত ক্রীড়া উপকমিটির পক্ষ থেকে এই বাজেট অনুমোদনের সুপারিশ করা হয়েছে। মুজিববর্ষ পালন উপলক্ষে গঠিত জাতীয় কমিটির কাছে এই সুপারিশ পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, বৈঠকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীকে ঘিরে মুজিববর্ষ পালন উপলক্ষে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় যেসব কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সেগুলো তুলে ধরা হয়। বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থাকে সম্পৃক্ত করে ৩৬৫ দিনের ক্রীড়া ক্যালেন্ডার গঠনের কথাও জানায় মন্ত্রণালয়।

সংসদীয় কমিটি এর আগের বৈঠকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ‘এশিয়া বনাম রেস্ট অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ বা ‘বাংলাদেশ বনাম রেস্ট অব দ্য এশিয়া’ গলফ টুর্নামেন্টের সুপারিশ করেছিল। এছাড়া মুজিববর্ষ উপলক্ষে মন্ত্রণালয় যেসব খেলাধুলার আয়োজন করবে তার সবগুলোই বঙ্গবন্ধুর নামে হবে বলে কমিটিকে জানিয়েছে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে নৌকা বাইচসহ দেশীয় ও লোকজ খেলা আয়োজনের পরিকল্পনার কথাও জানানো হয়েছে। কমিটির সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় গাজীপুর, জামালপুর, কুড়িগ্রাম ও বগুড়ায় নৌকা বাইচ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

যুব ও ক্রীড়া উপকমিটি মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে নেলসন ম্যান্ডেলার আদলে জাতির পিতার ভাস্কর্য স্থাপনের সরকারের পরিকল্পনার কথাও বুধবারের বৈঠকে জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত, মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে ভাস্কর্য স্থাপনসহ জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় ভাষণ প্রদানের ঐতিহাসিক ঘটনা উদ্‌যাপনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

সংসদ সচিবালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বৈঠকে ‘বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বিল, ২০১৯’ পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য কমিটির সদস্য এ এম নাঈমুর রহমানকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের একটি সাব-কমিটি গঠন করা হয়।

বৈঠকে নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী প্রতিটি উপজেলায় প্রশিক্ষণ ও বিনোদনকেন্দ্র স্থাপনের লক্ষ্যে আগামী ৩ মাসের মধ্যে ডিপিপি প্রণয়ন করে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে কমিটি সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল, নাজমুল হাসান, আব্দুস সালাম মুর্শেদী, জুয়েল আরেং, এ এম নাঈমুর রহমান ও জাকিয়া তাবাসসুম বৈঠকে অংশ নেন।

মন্তব্য