| প্রচ্ছদ

নদীতে ফেলা হলো ৭৫০ মণ ভেজাল গুড়

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৫৩ বার। প্রকাশ: ০৩ অক্টোবর ২০১৯ ।

রাজশাহীর বাঘায় কেমিক্যাল মিশ্রিত ও নোংরা পরিবেশে গুড় তৈরির জন্য চারটি কারখানাকে এক লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ সময় ৭৫০ মণ ভেজাল গুড় জব্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার উপজেলার আড়ানী পৌর এলাকার সাহাপুর, বেড়েরবাড়ি ও দিয়াড়পাড়া এলাকার বিভিন্ন কারখানায় এই অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে আড়ানী পৌর এলাকার দিয়াড়পাড়া গ্রামের রাজন ও তার ভাই সুজনকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে তাদের দুইজনের ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদের দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়াও সাহাপুর গ্রামের জাহিদ হোসেনের ১০ হাজার, বেড়ের বাড়ি গ্রামের মন্টুর কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা আদায় করা হয়েছে।

র‌্যাব জানায়, রাজশাহী র‌্যাব-৫ এর এএসপি সজল কুমার ও এএসপি এসএম জামিল শেখের নেতৃত্বে বিকেল পর্যন্ত অভিযান চালানো হয়। এ সময় ৪৮টি ভ্যান আটক করে কেমিক্যাল মিশ্রিত সাড়ে ৭শ’মণ গুড় জব্দ করা হয়। পরে ভ্র্যাম্যমাণ আদালতের বিচারক আরাফাত আমিন আজিজের উপস্থিতিতে জব্দ করা গুড়গুলো বড়াল নদীতে ফেলে ধ্বংস করা হয়েছে। একই সঙ্গে গুড়ে মিশ্রিত ৫০ কেজি ওজনের কয়েক ব্যাগ চিনি নদীতে ফেলে দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজশাহী র‌্যাব-৫ এর এএসপি এসএম জামিল শেখ। খবর সমকাল অনলাইন।

মন্তব্য