| প্রচ্ছদ

শেখ হাসিনার বক্তব্যের পর পেঁয়াজ নিয়ে নতুনভাবে বিবেচনা করছে ভারত

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩৭ বার। প্রকাশ: ০৪ অক্টোবর ২০১৯ ।

নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশ-ভারত বিজনেস ফোরামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ নিয়ে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি জানিয়েছেন, কোনো ধরনের পূর্ব নোটিশ ছাড়া প্রতিবেশী দেশ ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয়ায় তিনি রন্ধনশালার কর্মীদের তরকারিতে পেঁয়াজ না দেয়ার জন্য নির্দেশ দেন।

এরপর দেশটির পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র রাভিশ কুমার জানিয়েছেন, পেঁয়াজ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মন্তব্য গুরুত্ব সহকারে নিয়েছে দিল্লি। কীভাবে তার উদ্বেগ কমানো যায় তা বিবেচনাও করা হচ্ছে বলে জানানো হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা বলেন, ভবিষ্যতে এ ধরনের কোনো পণ্য রফতানি বন্ধ করার আগে জানালে বাংলাদেশ পণ্য সংকট মোকাবেলায় আগাম প্রস্তুতি নিতে পারে।

প্রসঙ্গত, গত মাসের মাঝামাঝি থেকেই দেশের বাজারে পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতা শুরু হয়। গত ১৩ সেপ্টেম্বর পেঁয়াজ রফতানিতে ন্যূনতম মূল্য টনপ্রতি ৮৫০ ডলার বেঁধে দেয়া হয়।

একদিন পর বাংলাদেশের বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম বাড়ে প্রায় ১৫ টাকা। এরপর আরও কয়েক দফা দাম বেড়ে খুচরা বাজারে দেশি পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৭৫-৮০ টাকা ও ভারতীয় পেঁয়াজ ৭০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছিল। কিন্তু ২৯ সেপ্টেম্বর ভারত পেঁয়াজ রফতানি পুরোপুরি বন্ধ করে দেয়ায় বাংলাদেশের বাজারে হু হু করে বেড়ে যায় পেঁয়াজের দাম। কেজিপ্রতি পেঁয়াজ বর্তমানে ১২০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে।

মন্তব্য