| প্রচ্ছদ

ডাব চুরির অপবাদে স্কুলছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৩১ বার। প্রকাশ: ০৬ অক্টোবর ২০১৯ ।

পাবনার চাটমোহরে ডাব চুরির অপবাদ দিয়ে আশরাফুল ইসলাম (১২) নামে এক স্কুলছাত্রকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে মনছের প্রামাণিক নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

শনিবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের আবেদীনপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পরে সন্ধ্যায় আহতাবস্থায় স্থানীয়রা ওই স্কুলছাত্রকে চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহত আশরাফুল আবেদীনপাড়া গ্রামের আশু কসাইয়ের ছেলে ও হরিপুর দুর্গাদাস স্কুল অ্যান্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র। অভিযুক্ত মনছের একই ইউনিয়নের শ্রীধরপুর গ্রামের নিজাম প্রামাণিকের ছেলে।

আহত স্কুলছাত্র জানায়, দুর্গাপূজা উপলক্ষে স্কুল ছুটি থাকায় শনিবার দুপুরে সমবয়সী কয়েকজন শিশুর সঙ্গে মনছের আলীর বাগানে খেলাধুলা করছিল আশরাফুলসহ কয়েকজন।

এ সময় মনছের আলী বাগানে এসে তাকে ডাব চুরির অপবাদ দিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে বাঁশ দিয়ে বেধড়ক পেটায়।

মারধরের পরে তাকে (আশরাফুল) মাটিতে দাঁড় করিয়ে রেখে পিঁপড়ার কামড় খাওয়ায়।

এর পর স্থানীয়রা আশরাফুলকে উদ্ধার করে চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

এদিকে অভিযুক্ত মনছের প্রামাণিকের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করা যায়নি বলে তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. রুমা আখতার  বলেন, শিশুটির শরীরের বেশ কয়েক জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর ওই রোগীর পরিবার উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যেতে চাইলে রোগীকে সেখানে (রাজশাহী) স্থানান্তর করা হয়।

হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন  বলেন, আমি এলাকায় ছিলাম না। তবে দুপক্ষই আমাকে ফোন করে বিষয়টি জানিয়েছে।

এর আগে আশারাফুল নামের ওই স্কুলছাত্রের বিরুদ্ধে সুপারি চুরির অভিযোগ করেছিলেন মনছের প্রামাণিক নামের ওই ব্যক্তি।

মন্তব্য