| প্রচ্ছদ

পাঁচ বছর ধরে ছেলের বউকে ধর্ষণ, জানতেন স্বামী!

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৬ বার। প্রকাশ: ০৬ অক্টোবর ২০১৯ ।

এক গৃহবধূকে পাঁচ বছর ধরে শ্বশুর ও দেবরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের একটি গ্রামে। ওই নারীকে তার শ্বশুর বলেছিলেন, ছেলের বউ নয়, আমার শরীরের চাহিদা মেটাতে তোমাকে ঘরে এনেছি। শ্বশুরের পাশাপাশি দেবরও তাকে ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। ওই নারী বলেন, ধর্ষণের ব্যাপারে তার স্বামী জানতেন। কিন্তু সবকিছু জানা স্বত্ত্বেও তিনি কোনো প্রতিবাদ করেননি। এ কারণে তার শ্বশুর বেপরোয়া হয়ে ওঠেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, উত্তরপ্রদেশের বরেলি থানায় এক নারী কিছুদিন আগে নিজের শ্বশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে তিনি বলেন, ২০১৪ সালে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর একদিন শ্বশুর তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। তিনি ঘটনার আকস্মিকতায় বিহ্বল হয়ে পড়েন। শ্বশুরের কাছে নিজের সতীত্ব রক্ষায় অনেক অনুরোধ করেন।

কিন্তু শ্বশুর তাকে বলেন, ছেলের বউ হিসেবে নয়, নিজের শরীরের চাহিদা মেটানোর জন্য তোমাকে বাড়ির বউ করে এনেছি। এরপর প্রায় প্রতিদিন তাকে শ্বশুর ধর্ষণ করতেন বলে অভিযোগ করেছেন ওই নারী। সম্প্রতি বাধ্য হয়ে থানায় অভিযোগ করেছেন পাঁচ বছর ধরে ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ। 

মন্তব্য