| প্রচ্ছদ

ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৯ বার। প্রকাশ: ০৯ অক্টোবর ২০১৯ ।

গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ও শান্তিতে নোবেল বিজয়ী ড. মুহম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে।

ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের চেয়ারম্যান রহিবুল ইসলাম বুধবার এ আদেশ দেন। খবর সমকাল অনলাইন

এদিন তিন মামলায় ড. ইউনূসের সমনের জবাব দেওয়ার জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু তিনি আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় আদালত পরোয়ানা জারি করেন।

প্রতিষ্ঠানে ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করায় চাকরিচ্যুতের অভিযোগে ড. ইউনুসসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

গত ৩ জুলাই ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতে ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন তার প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সের সদ্য চাকরিচ্যুত সাবেক তিন কর্মচারী।

রাজধানীর পুরানা পল্টন সাবেক দৈনিক বাংলা ভবনে অবস্থিত ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতে ৮ অক্টোবর তাদের হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করা হয়েছিল। অপর দুই আসামি একই প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজনীন সুলতানা ও উপ-মহাব্যবস্থাপক খন্দকার আবু আবেদীন আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন। আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন এবং ইউনুস না আসায় তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করেন।

মামলার বাদী প্রস্তাবিত গ্রামীণ কমিউনিকেশন্স শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আবদুস সালাম বলেন, প্রতিষ্ঠানে ইউনিয়ন গঠন করায় চাকরিচ্যুত হওয়ায় ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তিনি বুধবার আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

আদালতে আইনজীবী রাজু আহমেদ আদালতকে বলেন, ড. ইউনূস সম্মানিত ব্যক্তি। তিনি ব্যবসার কাজে বিদেশ অবস্থান করছেন। দেশে এলে আদালতে উপস্থিত হবেন। এ পর্যায়ে আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

মন্তব্য