বিজেপিকে ছাড়ার পর পদত্যাগ করলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
প্রকাশ: ০৯ অগাস্ট ২০২২ ২০:৫৮ ।
আন্তর্জাতিক
পঠিত হয়েছে ১২ বার।

ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সঙ্গে করা জোট ছেড়ে দিয়েছেন বিহারের জনতা দল-ইউনাইটেডের (জেডিইউ) নেতা নিতীশ কুমার। আজ মঙ্গলবার বিজেপির সঙ্গত্যাগের ঘোষণা দিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়েছেন তিনি।

 

পদত্যাগের আগে নিজ দলের বিধায়ক ও পার্লামেন্ট সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন নিতীশ কুমার। পরে বিকেলে রাজ্যপালের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন। এরপর গণমাধ্যমের সামনে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমি পদত্যাগ করেছি। এ বিষয়ে দলের বিধায়কদের জানিয়েছি।’

 

এদিকে বিজেপিকে বাদ দিয়ে নতুন সরকার গঠনের অনুমতির জন্য রাষ্ট্রীয় জনতা দলের (আরজেডি) প্রধান তেজস্বী যাদবকে নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করবেন নিতীশ কুমার। নতুন এ জোটে কংগ্রেসসহ আরও কয়েকটি দল থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ সরকারেরও মুখ্যমন্ত্রী হবেন নিতীশ। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে দ্বিতীয় বার উপমুখ্যমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন তেজস্বী যাদব।

এদিকে জেডিইউ সঙ্গত্যাগের পর বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে বিহার বিজেপির জ্যেষ্ঠ নেতারা রাজধানী পাটনা সমবেত হচ্ছেন। তাদের মধ্যে রয়েছে বিহারে দলটির বিধায়ক সুশীল কুমার মোদি ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ।

 

এর আগে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা অমিত শাহকে নিয়ে নিতীশ কুমারের অভিযোগ ঘিরে বিহারে জোট সরকারের দুই শরিক—বিজেপি ও জেডিইউর মধ্যে উত্তেজনা চরমে ওঠে। নিতীশের অভিযোগ, তার দল ভাঙতে আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন অমিত শাহ।

 

এমন পরিস্থিতির জন্য নিজ দলের নেতা আরসিপি সিংকে দায়ী করেন নিতীশ। বলেন, অমিত শাহর হয়ে কাজ করছেন আরসিপি সিং। এসবের মধ্যে তাঁর বিরুদ্ধে গুরুতর দুর্নীতির অভিযোগ তোলে জেডিইউ। এর পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি দল থেকে পদত্যাগ করেন তিনি।

 

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা