বগুড়ার শেরপুরে পাওনা টাকা চাওয়ায় মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
প্রকাশ: ২৪ নভেম্বর ২০২২ ১৮:২৩ ।
বগুড়ার খবর
পঠিত হয়েছে ১৩ বার।

বগুড়ার শেরপুরে পাওনা টাকা চাওয়ায় নারী নির্যাতনের মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির করার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) বিকেল পাঁচটায় শহরের স্থানীয় বাসস্ট্যান্ডস্থ শেরপুর প্রেসক্লাব কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন করেন উপজেলার গাড়ীদহ ইউনিয়নের মহিপুর নতুনপাড়া গ্রামের দলিবর রহমান।


তিনি লিখিত বক্তৃতায় বলেন, বিগত দুই মাস আগে মহিপুর নতুনপাড়া গ্রামের মোজাম সরকারের ছেলে আব্দুল আলীমের নিকট থেকে খুদ-গুড়া ও চিটা বিক্রির ৪৩হাজার ৫৬০টাকা পাওনা রয়েছে আমার ছেলে শরীফ উদ্দিনের। সেই টাকা চাওয়ায় আমার ছেলের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন আলীম ও তার লোকজন। এমনকি তাকে বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ হুমকি-ধামকি দেওয়া হয়। কিন্তু তার এসব হুমকি-ধামকি উপেক্ষা করে বিগত ১০নভেম্বর আবারও তার কাছে পাওনা টাকা দাবি করেন শরীফ উদ্দিন। এতে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন তিনি।


এরই জেরে আব্দুল আলীম তার চাতালে কাজ করা এক নারী শ্রমিককে দিয়ে আমার ছেলে শরীফের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের মিথ্যা অভিযোগ তুলে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
ভুক্তভোগী দলিবর রহমান অভিযোগ করে বলেন, মামলায় ঘটনাস্থল হিসেবে যে রাইচ মিল দেখানো হয়েছে। সেটি দীর্ঘদিন ধরে তালাবদ্ধ অবস্থায় পড়ে রয়েছে। মিলটির মালিক নোটারি পাবলিকে এভিডেভিটের মাধ্যমে সেই ঘোষণা দিয়েছেন। এতেই প্রমাণিত হয়েছে মামলাটি সম্পুর্ণ মিথ্যা ও সাজানো নাটক। এছাড়া মামলা দায়েরের পর থেকেই আলীম ও তার লোকজন মামলাটি আপোষ-রফার করে দেওয়ার কথা বলে আমাদের কাছে আড়াই লাখ দাবি করে আসছেন।


তাই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ঘটনাটির সুষ্ঠ তদন্তপূর্বক সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তাদের নিকট ন্যায় বিচার প্রার্থনা করছি। সেইসঙ্গে হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা থেকে মুক্তি দেওয়ার জোর দাবি করেন তিনি।


ঘটনাটি সম্পর্কে বক্তব্য জানতে চাইলে আব্দুল আলীমের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দেওয়া হয়। কিন্তু ফোন না ধরায় তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।


মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শেরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রামজীবন বলেন, মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে। তাই কোনো মন্তব্য করতে পারছি না। তবে তদন্তে যেটি পাওয়া যাবে সেটি প্রতিবেদন দেওয়া হবে। কারো দ্বারা প্রভাবিত হয়ে অন্যায়ভাবে কাউকে হয়রানী করা হবে না বলে দাবি করেন তিনি।