পরীক্ষায় ফেল করায় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
প্রকাশ: ২৯ নভেম্বর ২০২২ ২১:০৩ ।
দেশের খবর
পঠিত হয়েছে ৩২ বার।

নরসিংদীর রায়পুরায় পরীক্ষায় ফেল করায় সাদিয়া আক্তার (১৫) নামে এক শিক্ষার্থী গলায় উড়না পেঁচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে রায়পুরা উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সাদিয়া আক্তার উপজেলার সাধুনগর গ্রামের জাহিরের বাড়ির কৃষক সোহরাফ মিয়ার মেয়ে। এবারের এসএসসি পরীক্ষায় সে মানবিক বিভাগ থেকে অংশ নেয়। এতে ইংরেজি দ্বিতীয় ও গণিত বিষয়ে কম নম্বর পেয়ে অকৃতকার্য হয় সাদিয়া।

পুলিশ ও স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, নিহত ওই শিক্ষার্থী গতকাল পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ার পর থেকে বিষন্ন ছিল। তার বড় বোনের সাথে মুঠোফোনে মন খারাপের বিষয়টি জানান। পরে তার বড় বাড়িতে আসেন। আজ দুপুরে সাদিয়ার সাড়াশব্দ না পেয়ে প্রতিবেশীদের নিয়ে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে দেখে সে আত্মহত্যা করেছে। পরে স্থানীয়রা রায়পুরা থানা পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে রায়পুরা থানার উপপরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিন ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুত করে।
নিহতের চাচাত ভাই জুয়েল মিয়া জানান, গতকাল পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় মন খারাপ করে কান্নাকাটি করে সাদিয়া। কৃষক বাবা কাজে বাড়ির বাইরে ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় একা ঘরে ওড়না পেঁচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে সে।

নিহতের বান্ধবী লিজা জানান, ‘পরীক্ষায় ফেল করার পর থেকে রাত পর্যন্ত কান্না কাটি করে সাদিয়া। তাকে বোর্ডে পুনরায় যাচাইয়ের জন্য আবেদনসহ সান্তনা দেওয়া হয়। মঙ্গলবার বিকেলে আবেদনের কথা ছিল। দুপুরে শুনলাম এ ঘটনা।’ রায়পুরা থানার উপপরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুত করি। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।