মোবাইল ফোন লুকিয়ে রাখায় মাকে পিটিয়ে হত্যা!

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০২১ ১৫:২০ ।
প্রচ্ছদ
পঠিত হয়েছে ৭১ বার।

রংপুরে রাবেয়া বেগম (৫০) নামের এক নারীকে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে তার মানসিক ভারসাম্যহীন দত্তক ছেলে। মোবাইল ফোন লুকিয়ে রাখায় এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে শনিবার রাতে নগরীর উত্তর মুনশিপাড়া এলাকায়। নিহত রাবেয়া বেগম ওই এলাকার মৃত ইকরামুল ইসলামের স্ত্রী। পুলিশ দত্তক ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নিঃসন্তান ইকরামুল ইসলাম ও রাবেয়া বেগম দম্পতি পাবনা থেকে এক বছর বয়সী রাকিবকে দত্তক নিয়ে আসেন। রাবেয়ার বাবার বাড়ি পাবনায়। পেশায় মাংস ব্যবসায়ী স্বামী ইকরামুল ইসলাম দু’বছর আগে মারা গেছেন। রাকিব (২০) মানসিক ভারসাম্যহীন। এর আগে অনেকবার মারধর করলেও নিঃসন্তান বিধবা রাবেয়া বেগম তাকে নিয়ে একা ওই বাড়িতে বসবাস করতেন। শনিবার রাতে মোবাইল ফোন লুকিয়ে রাখায় রাবেয়া বেগমকে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে আঘাত করে দত্তক ছেলে রাকিব। রাবেয়া বেগমের চিৎকার শুনে প্রতিবেশী অনেকেই ওই বাড়িতে আসেন। লোকজনের উপস্থিতিতেও ক্রিকেটের ব্যাট দিয়ে তার মাথায় উপর্যুপরি আঘাত করে রাকিব। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান রাবেয়া বেগম।

খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ক্রিকেটের ব্যাটসহ রাকিবকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। রংপুর মহানগর পুলিশের কোতয়ালি থানার ওসি আব্দুর রশিদ আজ রবিবার দুপুরে জানান, এ ঘটনায় নিহতের দেবর মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিয়েছে। রাকিবকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে।