প্রচ্ছদ

নওগাঁ প্রতিনিধি

পঠিত হয়েছে ৪৮ বার।
প্রকাশ: ১৮ জুন ২০২১ ১৩:২১ ।

নওগাঁয় সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে ফল উৎসব

নওগাঁয় পিছিয়ে থাকা সুবিধা বঞ্চিত এমন অর্ধশতাধিক শিশুকে নানা জাতের মৌসুমী ফল খাওনোর মধ্য দিয়ে পালন করা হলো ফল উৎসব। শুক্রবার দুপুরে নওগাঁ সদর উপজেলার কাদোয়া গ্রামে এই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। সামজিক সংগঠন একুশে পরিষদ নওগাঁর সহযোগিতায় মুক্ত পাঠশালা নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এই উৎসবের আয়োজন করেন। এই ফল উৎসবে উপস্থিত ছিলেন একুশে পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট ডি এম আবলি বারী,সিনিযর সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ ছিদ্দিকুর রহমান,মুক্তপাঠশালার প্রতিষ্ঠাতা নাজনীন মুন্নি ও তার ভাই মোঃ কাইয়ুম হোসেন প্রমুখ।


একুশে পরিষদের সভাপতি ডি এম আবুল বারী জানান নওগাঁ শহরের উত্তরপূর্ব পার্শ্বে নিভৃত পল্লী কাদোযা গ্রাম। ওই গ্রামের মেয়ে  নওগাঁ সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষার্থী নাজনীন মুন্নি  ও তার সহোদর ভাই মোঃ কাইয়ুম হোসেন মিলে গ্রামে গড়ে তোলেন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পডাশোনার ব্যবস্থা "মুক্তপাঠশালা"। সম্পূর্ণ অবৈতনিক ভাবে স্বেচ্ছাশ্রমে ওই এলাকার অতীব গরীব সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পড়াশোনা শেখানো হয় কখনো গাছ তলায়, কখনো কারো বারান্দায় বা কখনো নিজ বাসায়। শুধু তাই নয় এই শিশুদের পরনের পোশাক বই খাতা পেন্সিল কলমসহ আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র প্রদান করেন তারা। নিজেদের লেখাপডার পাশাপাশি স্বেচ্ছাশ্রমে আরো কিছু যুব কিশোর-তরুণ তরুণী যুক্ত হযেেছ এই মুক্তপাঠ পাঠশালার কার্যক্রমে। যখন দেশের তরুণ-তরুনীর কিছু অংশ বিপথগামী মাদকাসক্ত বা অন্য কোনো নেতিবাচক কার্যক্রমে জড়িয়ে পডেেছ ঠিক সেই সময় আশার আলো দেখিয়েছে কাদোযা গ্রামের নাজনীন মুন্নী কাইয়ুম হোসেনসহ তার সতীর্থরা ।

প্রথম ১৫ থেকে ২০ জন নিয়ে এই মুক্তপাঠশালার কার্যক্রম শুরু হলেও এখন এর শিক্ষার্থী সংখ্যা অর্ধ শতাধিক। এই শিশুদের জন্যই মৌসুমী ফল আম,জাম,কাঠাল,লিচুসহ বিভিন্ন ধরনের ফল দিয়ে তাদের ফলাহার করা হয়। শিশুরাও ফল খেয়ে অনেক আনন্দিত হয়েছে। কারন যেখানে তাদের লেখা-পড়ার খরচ চালাতে পারে না অভিভাবকরা,সেখানে বাজার থেকে ফল কিনে কিভাবে খাওয়াবে এই শিশুদের। তিনি এধরনের শিশুদের ফলাহার করাতে সমাজের বিত্তশালীদের এগিযে আসার আহবান জানান।